যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর স্থগিত

  

পিএনএস ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রে যে প্রক্রিয়ায় মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয় তা বেআইনি হতে পারে, এই শঙ্কায় এমন নির্দেশনা দিয়েছেন । দেশটিতে বর্তমানে বিষাক্ত ইনজেকশন প্রদান করে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়।

আগামী ডিসেম্বর ও জানুয়ারি মাসে ইন্ডিয়ানা রাজ্যে পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার কথা ছিলো। কিন্তু যে পদ্ধতিতে এসব মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হচ্ছে তার বিরুদ্ধে চারজন বন্দী আইনি চ্যালেঞ্জ জানান। পরে একজন বিচারক রায় দেন যে তাদের এই চ্যালেঞ্জ সফল হবার সম্ভাবনা রয়েছে। অন্য একটি আদালতের আদেশে পঞ্চম ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ড ইতোমধ্যেই স্থগিত করা হয়েছে।

ডিসট্রিক্ট জাজ টানিয়া এস চুটকান বলেছেন, এই চার ব্যক্তিকে আদালতে তাদের মামলার শুনানি করতে না দিলে তাদের অপূরণীয় ক্ষতি হয়ে যেতে পারে। তাদের মৃত্যুদণ্ড যেভাবে ইনজেকশন দিয়ে কার্যকর করা হবে সেটা নিয়েই এই শুনানি হবার কথা রয়েছে।

কেন্দ্রীয় সরকারের হাতে এসব মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার ঘটনা দীর্ঘ সময় ধরে ঝুলে ছিলো। কিন্তু মার্কিন অ্যাটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বার এবছরের শুরুর দিকে এই মুলতবি প্রত্যাহার করে নেয়ার কথা ঘোষণা করেন। এরপর বর্তমান সরকার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার প্রক্রিয়া পুনরায় শুরু করে। যে পদ্ধতিতে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হচ্ছে তার বিরুদ্ধে আদালতের বেশ কয়েকটি রায়ের পর এটি বন্ধ ছিলো। তিনটি ভিন্ন ভিন্ন ড্রাগ একসঙ্গে মিশিয়ে আসামির শরীরে সেটি ইনজেকশনের সাহায্যে প্রবেশ করিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়ে থাকে। গত জুলাই মাসে বার বিচার বিভাগকে নির্দেশনা দিয়েছিলেন শুধুমাত্র পেনটোবারবিটাল নামের একটি ড্রাগ ব্যবহারের জন্যে। এই ড্রাগের ফলে নার্ভাস সিস্টেম ধীরে ধীরে শিথিল হয়ে আসামি মারা যায়।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech