‘আজাদি স্লোগান দিলেই রাষ্ট্রদ্রোহী’

  



পিএনএস ডেস্ক: আজাদি বলে স্লোগান দিলেই তাকে রাষ্ট্রদ্রোহী বলে সাব্যস্ত করা হবে বলে হুশিয়ার করেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশ মুখ্যমন্ত্রী যোগি আদিত্যনাথ।

নিজের রাজ্যে চলমান সিএএবিরোধী বিক্ষোভ দমাতে উঠে-পড়ে লেগেছেন যোগি। সম্প্রতি লাখনৌয়ের বিখ্যাত ক্লক টাওয়ারের নিচে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় লাখ লাখ মানুষ অবস্থান কর্মসূচিতে বসেছেন। খবর এনডিটিভির।

পাশাপাশি এনআরসির বিরুদ্ধেও প্রতিবাদ করা হচ্ছে ওই সমাবেশে। ওই বিক্ষোভকারীদের মুখে উঠে আসছে "আজাদি" স্লোগানও। আর এতেই প্রবল আপত্তি উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর।

রীতিমতো হুঁশিয়ারি দিয়ে যোগি বলেছেন, যারা এই ধরনের বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে আজাদি বলে স্লোগান দেবেন, তাদের দেশদ্রোহী বলে গণ্য করা হবে।

ওই বিক্ষোভকারীদের কড়া হাতে দমন করা হবে বলেও হুঁশিয়ারি দিলেন তিনি। কানপুরে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের পক্ষে প্রচার সমাবেশে যোগ দিয়ে যোগি আদিত্যনাথ এ কথা বলেন।

যোগি বলেন, প্রতিবাদের নামে কেউ যদি আজাদি বলে স্লোগান দেন তবে সেই বিষয়টিকে দেশদ্রোহিতার মতো অপরাধ বলে গণ্য করা হবে এবং সরকার এর বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেবে।

নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় অবস্থানরত বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক হিংসা ও বেআইনি সমাবেশ করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

ইতিমধ্যেই পুলিশ তিনটি ফৌজদারি মামলা দায়ের করেছে, যে মামলায় অভিযুক্তদের মধ্যে রয়েছেন খ্যাতনামা উর্দু কবি মুনাওয়ার রানার দুই মেয়ে সুমাইয়া রানা এবং ফৌজিয়া রানার নামও রয়েছে।

বিক্ষোভ প্রসঙ্গে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, কংগ্রেস, সমাজবাদী পার্টি এবং বাম দলগুলোর এ বিষয়গুলো নিয়ে রাজনীতি করা লজ্জাজনক।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনে আফগানিস্তান, পাকিস্তান, বাংলাদেশ থেকে ২০১৫ সালের আগে আগত কেবল অমুসলিম শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেয়ার কথা বলা হয়েছে।

বিরোধীদের মতে, এই আইন বৈষম্যমূলক এবং সংবিধানে বর্ণিত দেশের ধর্মনিরপেক্ষ ভাবমূর্তির পরিপন্থী। কিন্তু নিজেদের জায়গা থেকে সরতে নারাজ কেন্দ্রীয় সরকার।

এই দেশে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন প্রয়োগ করা হবে বলেই সাফ জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অমিত শাহ।

পিএনএস/হাফিজ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন