তলানিতে চীনের অর্থনীতি, ১ মাসেই ক্ষতি ৩৪ লাখ কোটি টাকা!

  


পিএনএস ডেস্ক: চীনের প্রাণঘাতী ভাইরাসে আক্রান্ত এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৪৮৩ জনের। এছাড়াও আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৬৫ হাজার মানুষ। যে কারণে জনগণের মধ্যে উৎকণ্ঠা বেড়েছে। তবে কিছুটা হলেও আশার খবর শোনাচ্ছে সে দেশের হাসপাতালগুলো।

স্থানীয় প্রশাসন জানাচ্ছে, এই ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের অনেকেই সুস্থ হয়ে বাড়িও ফিরছেন। চীন থেকে ইতোমধ্যে এই ভাইরাস বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়ার কারণে এক মাসেই চীনের অর্থনীতিতে মারাত্মক প্রভাব পড়েছে।

স্থানীয় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, একেবারে তলানিতে পৌঁছে গিয়েছে চীনের অর্থনীতি। বলা হচ্ছে, ৩০ বছরের ইতিহাসে সবথেকে তলানিতে দেশের অর্থনীতি। যা চীনের অর্থনীতিতে বড় ধাক্কা। জানা গিয়েছে, গত চার বছরের মধ্যে চীনের সংস্থাগুলোতে হঠাৎ করেই কমে গিয়েছে লাভের পরিমাণ। ভাইরাসের আতঙ্কে বাইরের বিভিন্ন সংস্থাও চীনে থাকা অফিসগুলোর ঝাঁপ বন্ধ করে দিয়েছে। সমস্ত কর্মীদের ফিরিয়ে আনছে সেখান থেকে। কমিউনিস্ট চীনের শেয়ার বাজারেও বড় পতন লক্ষ্য করা গিয়েছে।

অর্থনীতিবিদরা বলছেন, গত একমাসে শুধুমাত্র করোনাভাইরাসের জন্যে ৪২০ বিলিয়ন ডলার যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ৩৪ লাখ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। যা চীনের জন্যে যথেষ্ট মাথা ব্যাথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কীভাবে বিশাল এই ক্ষতি মোকাবেলা করা যায় তা রীতিমত চ্যালেঞ্জের কমিউনিস্টদের কাছে।

চীনের সঙ্গে সীমান্ত রয়েছে ভারতের। আবার ভারতেরই প্রতিবেশী পাকিস্তান, নেপাল, ভুটান, মিয়ানমারের সঙ্গেও চীনের সীমান্ত। নেপাল, ভারতে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সন্ধান পাওয়ায় দুটি দেশেই জারি বিশেষ সতর্কতা। সূত্র: কলকাতা*২৪।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech