ফ্রান্সের মহামারি বিশেষজ্ঞ বললেন- করোনায় মোটা মানুষের ঝুঁকি বেশি

  

পিএনএস ডেস্ক: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি মোটা হলে ঝুঁকি বেশি থাকে বলে জানিয়েছেন ফ্রান্সের প্রধান মহামারি বিশেষজ্ঞ জন ফ্রান্সিস ডেলফ্রাইসি। যুক্তরাষ্ট্রে স্থূলকায় মানুষজন এক্ষেত্রে ঝুঁকিতে আছেন বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, এই ভাইরাস সত্যিই ভয়ানক। অল্পবয়সীরাও আক্রান্ত হচ্ছে। তবে মোটা মানুষদের ঝুঁকি বেশি। যাদের অতিরিক্ত শারীরিক ওজন, তাদের অত্যন্ত সচেতন থাকা দরকার।

জন ফ্রান্সিস আরো বলেন, এ কারণে আমাদের মার্কিন বন্ধুদের নিয়ে চিন্তায় আছি। সেখানে স্থূলতা একটা বড় ধরনের সমস্যা। সে দেশে মুটিয়ে যাওয়ার সমস্যায় ভোগেন বহু মানুষ। আর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত সর্বোচ্চ সংখ্যক হয়েছে সেখানে।

তিনি আরো বলেন, ফ্রান্সের ২৫ শতাংশ মানুষ করোনা আক্রান্তের ঝুঁকিতে আছেন কেবল বয়স এবং শারীরিক পরিস্থিতির কারণে। এক্ষেত্রে স্থূলতা বড় সমস্যা।

এর আগে ২০১৮ সালে এক পরিসংখ্যানে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রে ৪২ দশমিক চার শতাংশ মানুষ মোটা। মোটা হওয়ার জেরে ডায়াবেটিস, স্ট্রোক, হার্ট অ্যাটাক, ক্যান্সার এবং অকাল মৃত্যুর ঘটনা ঘটে বলে মার্কিন সেন্টার ফর ডিসিস অ্যান্ড কন্ট্রোল প্রিভেনশন (সিডিসি) জানিয়েছে।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন