পাকিস্তানে বিমান দুর্ঘটনায় 'বিষ্ময়করভাবে' বেঁচে গেলেন দুই যাত্রী

  

পিএনএস ডেস্ক : করাচি বিমানবন্দরের কাছে শুক্রবার দুপুরে পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের (পিআইএ) একটি প্লেন বিধ্বস্তের ঘটনায় এ পর্যন্ত অন্তত ৬৬ জনের মৃত্যুর বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া গেছে। তবে অলৌকিকভাবে দুই যাত্রী বেঁচে গেছেন বলে জানিয়েছেন সিন্ধ প্রদেশ কর্তৃপক্ষ।

পিআইএ’র মুখপাত্র আব্দুল্লাহ হাফিজ জানান, বিধ্বস্তের সময় প্লেনটিতে ৯১ যাত্রী ও আটজন ক্রু ছিলেন। প্লেনটি লাহোর থেকে করাচি যাচ্ছিল।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, এ৩২০ এয়ারবাসটি অন্তত দুই থেকে তিনবার বিমানবন্দরে ল্যান্ডিংয়ের চেষ্টা করেছিল। পরে আবাসিক এলাকার মধ্যে একটি মোবাইল টাওয়ারের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ভবনের ওপর বিধ্বস্ত হয়। এর পরপরই প্লেনটিতে দাউদাউ করে আগুন ধরে যায়।

এমন ভয়ঙ্কর দুর্ঘটনার পরেও বিস্ময়করভাবে প্রাণে বেঁচে গেছেন প্লেনের দুই যাত্রী। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিন্ধের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর মিডিয়া কোঅর্ডিনেটর মীরান ইউসুফ। তিনি জানান, বেঁচে যাওয়া যাত্রীদের একজন হলেন ব্যাংক অব পাঞ্জাবের প্রেসিডেন্ট জাফর মাসুদ, আরেকজনের নাম জুবাইর।

মীরান বলেন, ‘জুবাইয়েরের শরীরের ৩৫ শতাংশ পুড়ে গেছে, তাকে করাচি সিভিল হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। জাফর মাসুদের চারটি হাঁড় ভেঙে গেছে। তিনি দারুল সেহাত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাদের দুজনের অবস্থাই স্থিতিশীল।’

দুর্ঘটনায় বেঁচে যাওয়া আরেকজনকে প্রথমে প্লেনের যাত্রী ভাবা হলেও পরে জানা গেছে তিনি স্থানীয় বাসিন্দা।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন