এবার পাক-ভারত সীমান্তে ব্যাপক গোলাগুলি

  

পিএনএস ডেস্ক : সীমান্ত সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে কাশ্মীরে ভারত ও পাকিস্তান সেনাদের মধ্যে ব্যাপক গোলা বর্ষণ শুরু হয়েছে। ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানাচ্ছে, বালাকোট সেক্টরে ভারতীয় সেনা ছাউনি লক্ষ্য করে গোলাবর্ষণ করছে পাকিস্তানের সেনারা। সীমান্ত সংলগ্ন গ্রামগুলোকেও লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করেছে তারা।

ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রলায়ের মুখপাত্র কর্নেল দেবেনদার আনন্দ বলেন, ‌‘আজ সকাল সোয়া ৮টার দিকে পাকিস্তান সেনারা কাশ্মীরের পুঞ্চ জেলার বালাকোট সেক্টরে এলওসি-র পাশে ছোট অস্ত্র দিয়ে গুলি চালিয়ে এবং মর্টার দিয়ে গুলি চালিয়ে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন শুরু করে। ভারতীয় সেনাবাহিনী তার প্রতিশোধ নিচ্ছে।’

তবে ভারতের সেনারাও পাল্টা প্রত্যাঘাত করে বিনা প্ররোচনায় ওই হামলার জবাব দিচ্ছে বলে দাবি দেশটির গণমাধ্যমগুলোর। সংঘর্ষের ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত দুই পক্ষে কোনও ক্ষয়ক্ষতি কিংবা হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

ভারতের দাবি প্রায় প্রতিদিন বিনা প্ররোচনায় জম্মু-কাশ্মীর সীমান্তবর্তী অঞ্চলগুলোয় সংঘর্ষ বিরতি লঙ্ঘন করছে পাকিস্তান। এ বছর জুন পর্যন্ত ২ হাজার ৪৩২ বার সীমান্তবর্তী অঞ্চলে সংঘর্ষ বিরতি লঙ্ঘন করছে পাকিস্তান এমন দাবি ভারতের। তাতে মৃত্যু হয়েছে ১৪ জন ভারতীয়ের। আহতের সংখ্যা ৮৮।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর একজন বলেন, ‘লাগাতার বিনা প্ররোচনায় সীমান্তে সংঘর্ষ বিরতি ঘটাচ্ছে পাকিস্তান। আমরা এর কড়া প্রতিবাদ করেছি।’ সেনাবাহিনীর ডিরেক্টর জেনারেল পর্যায়ে বৈঠকের পরও পাকিস্তানের দিক থেকে কোনও পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায়নি বলে জানিয়েছেন ভারতীয় সেনাবাহিনীর কর্মকর্তারা।

কাশ্মীরের লাদাখ সীমান্তে লাইন অব অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোলে চীনের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনার মধেই পাকিস্তানের সঙ্গে আন্তর্জাতিক সীমানায় নজরদারি বাড়াল সীমান্ত রক্ষা বাহিনী। গত ২০ জুন জম্মুর কাঠুয়া জেলায় আন্তর্জাতিক সীমানার কাছে অস্ত্রভর্তি পাকিস্তানি ড্রোন আটক করে ভারতের সীমান্ত রক্ষী বাহিনী।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন