সৌদিতে ভিক্ষা করায় ৪৫০ ভারতীয় বন্দিশিবিরে (ভিডিও)

  

পিএনএস ডেস্ক: কাজের খোঁজে পরিবার-পরিজন ছেড়ে পাড়ি জমিয়েছিলেন মরুর দেশ সৌদি আরবে। কিন্তু অন্যান্য দেশের অসহায় মানুষের মতো মহামারি করোনা তাদের কর্মহীন করেছে। বেঁচে থাকার তাগিদে নিরুপায় মানুষগুলো তাই শুরু করেন ভিক্ষাবৃত্তি। কিন্তু সৌদি কর্তৃপক্ষ এমন ৪৫০ ভারতীয়কে ধরে বন্দিশিবিরে আটকে রেখেছে।

শনিবার এক অনলাইন প্রতিবেদনে এমন খবর প্রকাশ করেছে ভারতের জাতীয় দৈনিক টাইমস অব ইন্ডিয়া। প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, আটক এসব অভিবাসী শ্রমিক দেশটির তেলেঙ্গানা, অন্ধ্রপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ, কাশ্মীর, বিহার, দিল্লি, রাজস্থান, কর্নাটক, হরিয়ানা, পাঞ্জাব ও মহারাষ্ট্রের মতো রাজ্যগুলোর বাসিন্দা।

ভিক্ষার ‘অপরাধে’ আটক এসব মানুষকে জেদ্দার শুমাইসি বন্দিশিবিরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। দেশটিতে ‘ওয়ার্ক পারমিটের’ মেয়াদ শেষ হওয়ার পর ভিক্ষাবৃত্তি শুরু করতে বাধ্য হন তারা। তবে শুধু ভারতীয় নয় সৌদিতে অবস্থানরত অনেক বিদেশি শ্রমিকের অবস্থাই এখন শোচনীয়; যাদের মধ্যে বেশিরভাগ দক্ষিণ এশিয়ার মানুষ।

করোনায় কাজ হারিয়ে বিপাকে পড়া এসব মানুষের মধ্যে কয়েকজন জানান, অসহায় হয়ে তারা ভিক্ষাবৃত্তি শুরু করতে বাধ্য হন। এ ছাড়া আর কোনো পথ খেলা ছিল না তাদের জন্য। আর ভিক্ষা করা ছাড়া কোনো অপরাধ করেননি তারা। তবুও তাদের আটক করে বন্দিশিবিরে রাখা হয়েছে। হতাশায় দিন যাচ্ছে বলে জানান তারা।

জেদ্দায় ভারতীয় কনস্যুলেটে টাইমস অব ইন্ডিয়ার পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হলেও এ পর্যন্ত কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয়েনি। করোনাকালে বিভিন্ন দেশে আটকে পড়া ২ লাখ ৪০ হাজার ভারতীয় শ্রমিক দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য আবেদন করলেও এ পর্যন্ত মাত্র ৪০ হাজারকে ফেরাতে পেরেছে ভারত সরকার।



পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন