আজারবাইজানের ড্রোন হামলায় কারাবাখের প্রতিরক্ষামন্ত্রী আহত

  

পিএনএস ডেস্ক : আজারবাইজানের সেনাবাহিনীর ড্রোন থেকে ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় নাগারনো-কারাবাখ নিয়ে গঠিত স্বঘোষিত আর্টসখ প্রজাতন্ত্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রী লে. জেনারেল জালাল হারুতিয়ান মারাত্মক আহত হয়েছেন। তাকে বহনকারী গাড়িতে বোমা হামলার ভিডিও ক্লিপ প্রকাশ করে এ দাবি করেছে আজারবাইজানের সেনাবাহিনী।

মঙ্গলবার এ ভিডিও প্রকাশের পর আর্মেনিয়ার গণমাধ্যম আর্মেনপ্রেস জালাল হারুতিয়ানের আহত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে। তবে আর্মেনপ্রেস বলছে, জালাল হারুতিয়ানের আহত হওয়ার সঙ্গে ওই ভিডিও ফুটেজের কোনো সম্পর্ক নেই। স্বঘোষিত আর্টসখের প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র বাহরাম পোঘোসায়ান আর্মেনপ্রেসকে এ কথা বলেছেন। বাহরাম পোঘোসায়ান বলেছেন, জালাল হারুতিয়ান যুদ্ধের ফ্রন্টলাইনে আহত হয়েছেন। তার আঘাত সামান্য। বর্তমানে তিনি নিবিড় পরিচর্যায় রয়েছেন। হারুতিয়ান শিগগির ফ্রন্ট লাইনে যোগ দেবেন বলে জানান পোঘোসায়ান।

আর্মেনিয়ার নিয়ন্ত্রণে থাকা কারাবাখ অঞ্চলের স্থানীয় সরকার সরকারের প্রধান আরাইক হারুতুনিয়ান বলেছেন, প্রতিরক্ষামন্ত্রী আহত হওয়ার কারণে মেজর জেনারেল মিকাইল আরজুমানয়ানকে এই পদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

এদিকে আজারবাইজানের প্রকাশ করা ভিডিও ক্লিপে দেখা যাচ্ছে, চলমান একটি গাড়িতে বিস্ফোরণের পর আগুন ধরে গেছে। এই গাড়িতেই হারুতিয়ান ছিলেন বলে দাবি করেছে আজারবাইজান।

সম্প্রতি আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার মধ্যে নাগার্নো-কারাবাখ অঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে ব্যাপক সংঘর্ষ শুরু হয়েছে। এর ফলে বহু মানুষ হতাহত হয়েছেন। দুই দেশ এর আগে তিন বার যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হলেও স্বল্প সময়ের ব্যবধানে তা ভেস্তে গেছে।

আন্তর্জাতিকভাবে নাগার্নো-কারাবাখ অঞ্চলটি আজারবাইজানের ভূখণ্ড হিসেবে স্বীকৃত। কিন্তু ১৯৯০ এর দশকে সেখানে নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করে আর্মেনিয়া। দখলীকৃত এলাকা থেকে বহু আজারি নাগরিককে বিতাড়িত করা হয় বলে অভিযোগ রয়েছে।

পিএনএস-জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন