করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের শঙ্কা!

  

পিএনএস ডেস্ক: আগামী বছরের শুরুতে ইউরোপ জুড়ে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা রয়েছে বলে সতর্ক করেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিশেষ দূত ডেভিড নাবারো।

বার্তাসংস্থা রয়র্টার্সের প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

সুইজারল্যান্ডের কয়েকটি পত্রিকায় দেওয়া সাক্ষাৎকারে ডব্লিউএইচওর কোভিড-১৯ বিষয়ক বিশেষ দূত নাবারো বলেন, করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ প্রতিরোধে ব্যর্থ হলে ২০২১ সালের শুরুর দিকে ইউরোপজুড়ে সংক্রমণের তৃতীয় ঢেউ শুরু হতে পারে।

তিনি বলেন, ইউরোপের দেশগুলো প্রথম ঢেউ নিয়ন্ত্রণে আসার পর গরমের মাসগুলোতে এই ভাইরাস প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় অবকাঠামো তৈরিতে ব্যর্থ হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, এখন আমাদের দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলা করতে হচ্ছে। যদি তারা প্রয়োজনীয় অবকাঠামো নির্মাণ না করে তবে আগামী বছরের শুরুতে তৃতীয় ঢেউ দেখতে হবে।

এদিকে শনিবার জার্মানি ও ফ্রান্সে ৩৩ হাজারের বেশি নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে। সুইজারল্যান্ড ও অস্ট্রিয়ায় দৈনিক হাজারো মানুষ নতুন করে এ রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন। তুরস্কে শনিবার পাঁচ হাজার ৫৩২ জন নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন।

এ পরিস্থিতিতেও শীতে তুষারপাত শুরু হওয়ায় সুইজারল্যান্ড পর্যটকদের জন্য তাদের স্কি রিসোর্টগুলো খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে গন্ডোলায় (এক ধরনের নৌকা) চড়তে হলে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

সুইজারল্যান্ডেকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, সুইজারল্যান্ডে সংক্রমণ এবং মৃত্যু উভয়ই অনেক বেশি হতে পারে।

তিনি আরো বলেন, যখন সংক্রমণ হ্রাস পেতে শুরু করবে তখন ক্রমাগত সেটা হ্রাস পাবে। তখন আমরা যা খুশি তাই করার সুযোগ পাব। কিন্তু এই মুহূর্তে? স্কি রিসোর্টগুলো খুলে দেওয়া কী ঠিক হল? কোন শর্তে সেগুলো খোলা হল?

এসময় ডেভিড নাবারো করোনা নিয়ন্ত্রণে দক্ষিণ কোরিয়ার মতো এশিয়ার দেশগুলোর প্রশংসা করেন।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন