মার্কিন যুদ্ধজাহাজকে তাড়া রাশিয়ার, জাপান সাগরে উত্তপ্ত পরিস্থিতি

  


পিএনএস ডেস্ক: জাপান সাগরে রাশিয়ার জলসীমার ভিতর ঢুকে পড়া যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর একটি যুদ্ধজাহাজকে রুশ যুদ্ধজাহাজ ধাওয়া দিয়ে তাড়িয়েছে বলে দাবি করেছে মস্কো। রাশিয়া দাবি করেছে, যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর ইউএসএস জন এস ম্যাককেইন ডেস্ট্রোয়ারকে তারা প্রায় ধরে ফেলেছিল। কারণ, মার্কিন ওই রণতরী মঙ্গলবার জাপান সাগরে পিটার দ্য গ্রেট গালফে তাদের জলসীমায় প্রবেশ করেছিল। রাশিয়ার এমন তাড়া খেয়ে ওই এলাকা থেকে পালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ওই রণতরী।

তবে যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনী কোনো অন্যায় করার কথা প্রত্যাখ্যান করে দাবি করেছে, তাদের ওই জাহাজকে ওই এলাকা ছাড়া করা হয়নি।যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধজাহাজের উপস্থিতি টের পেয়ে রুশ নৌযান অ্যাডমিরাল ভাইনোগ্রাদভ প্রথমে মৌখিকভাবে সতর্ক করে। এরপরও রুশ জলসীমা না ছাড়লে তারা ইউএসএস ম্যাককেইনকে আঘাত করারও হুমকি দেয়।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, গত মঙ্গলবার ইউএসএস জন এস ম্যাককেইন নামে একটি মার্কিন ডেস্ট্রয়ার রুশ জলসীমার প্রায় দুই কিলোমিটার ভেতরে প্রবেশ করছিল বলে দাবি করেছে রাশিয়া। এসময় রুশ নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ অ্যাডমিরাল ভিনোগ্রাদোভ মার্কিন জাহাজটিকে তাড়া করে এবং আঘাত করার হুমকি দিয়ে তাড়িয়ে দেয়।

রাশিয়ার বিবৃতি অনুসারে, সতর্কবার্তা দেয়ার পর মার্কিন যুদ্ধজাহাজটি গতিপথ পরিবর্তন করে চলে যায়। তবে রাশিয়ার এই দাবি নাকচ করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন বাহিনীর সপ্তম নৌবহরের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট জোসেফ কেইলি বলেছেন, মিশনটির বিষয়ে রাশিয়ান ফেডারেশনের দাবি মিথ্যা। ইউএসএস জন এস ম্যাককেইন কোনো দেশের জলসীমা থেকে বিতাড়িত হয়নি। তিনি আরও বলেন, যুক্তরাষ্ট্র কখনোই কাউকে উস্কানি দেবে না বা সমুদ্রে মিথ্যা হয়রানির কথা স্বীকার করবে না।

জাপান সাগরে রাশিয়ার পাশাপাশি জাপান এবং কোরিয়ারও জলসীমা রয়েছে। সোভিয়েত ইউনিয়নের সময় থেকেই অঞ্চলটিকে নিজেদের বলে দাবি করে রাশিয়া। তবে রুশদের এই জলসীমা মেনে নিতে রাজি নয় মার্কিনিরা।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন