মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যে বাংলাদেশের প্রতিবাদ

  

পিএনএস ডেস্ক : বাংলাদেশে আল কায়েদার হামলা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সাম্প্রতিক এক বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে তার বক্তব্যকে অগ্রহণযোগ্য হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

বাংলাদেশে আল কায়েদার হামলা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সাম্প্রতিক এক বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে তার বক্তব্যকে অগ্রহণযোগ্য হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “তিনি (পম্পেও) উল্লেখ করেছিলেন, বাংলাদেশে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আল কায়েদা হামলা চালিয়েছে এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের আক্রমণের ভুল আশঙ্কাও প্রকাশ করেছেন তিনি।”

তার বক্তব্য ভিত্তিহীন উল্লেখ করে বাংলাদেশ তা প্রত্যাখান করেছে। ডয়চে ভেলের কনটেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম বিবৃতিটি উদ্ধৃত করে লিখেছে, “বাংলাদেশে আল কায়েদার উপস্থিতির কোনো ভিত্তি নেই।”

যেকোনো ধরনের সন্ত্রাস ও উগ্রবাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ শূন্য সহিষ্ণুতার নীতি মেনে চলে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে। বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, “যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কর্তৃক আল কায়েদার কার্যক্রম পরিচালনার সম্ভাব্য ক্ষেত্র হিসাবে বাংলাদেশকে উল্লেখ করা ভিত্তিহীন ও প্রমাণহীন।”

তবে দাবি প্রমাণিত হলে তা মোকাবিলায় প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, “এ ধরনের দাবি যদি প্রমাণিত হয়, তা মোকাবিলায় প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ নেবে বাংলাদেশ সরকার। যদি জল্পনার উপর ভিত্তি করে এ ধরনের বক্তব্য দেওয়া হয়, বাংলাদেশ এটাকে দুর্ভাগ্যজনক হিসাবে বিবেচনা করছে, বিশেষ করে এমন সময়ে যখন দু'টি বন্ধু দেশ পারস্পরিক মূল্যবোধ, শান্তি ও একীভূত লক্ষ্যের উপর ক্রমবর্ধমান দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক এগিয়ে নিচ্ছে।” সূত্র: ডয়েচে ভেলে।

পিএনএস/এসআইআর

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন