সিরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করল ইউরোপীয় ইউনিয়ন

  


পিএনএস ডেস্ক: ইউরোপীয় ইউনিয়ন বা ইইউ সিরিয়া সরকারের মন্ত্রিসভার সদস্যদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার আওতা আবার বাড়িয়েছে। শুক্রবার ইইউ এক ঘোষণায় সিরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল মিকদাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

মিকদাদকে নিষেধাজ্ঞার আওতায় আনার ফলে তিনি ২৭ জাতির ইউরোপীয় ইউনিয়নের কোনও দেশ সফরে যেতে পারবেন না। এছাড়া, এসব দেশে সিরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কোনও সম্পদ থেকে থাকলে তাও জব্দ করা হবে।

২০১১ সালের গোড়ার দিকে সিরিয়ায় বিদেশি মদদে সহিংসতা চাপিয়ে দেওয়ার পর থেকে ইইউ দামেস্কের বিরুদ্ধে একের পর এক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। এ পর্যন্ত সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ ও প্রয়াত পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়ালিদ আল-মুয়াল্লেমসহ মন্ত্রিসভার বেশ কয়েক সদস্যের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ইইউ।

সৌদি আরব, আমেরিকা ও তাদের মিত্র দেশগুলোর সৃষ্ট সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলো ২০১১ সালের মার্চ মাসে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করার লক্ষ্যে দেশটিতে ভয়াবহ নাশকতামূলক তৎপরতা শুরু করে। মধ্যপ্রাচ্য পরিস্থিতিকে ইসরায়েলের অনুকূলে পরিবর্তন করা ছিল তাদের এ কাজের লক্ষ্য। এসব সন্ত্রাসী গোষ্ঠী বিশেষ করে উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠী দায়েশ ২০১৪ সাল পর্যন্ত সিরিয়ার বিস্তীর্ণ এলাকা দখল করে নিয়েছিল। কিন্তু পরবর্তীতে ইরান ও রাশিয়ার মতো মিত্র দেশগুলোর সহযোগিতায় বাশার আসাদ সরকার আবার প্রায় গোটা দেশের ওপর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হয়।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন