পদত্যাগের ঘোষণা দিয়ে সাইকেলযোগে দপ্তর ছাড়েন ডাচ প্রধানমন্ত্রী

  


পিএনএস ডেস্ক: ডাচ প্রধানমন্ত্রী মার্ক রূট্টে গত শুক্রবার তিনিসহ তার মন্ত্রীসভার সকল সদস্য এক সংবাদ সম্মেলনে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন। সেদিনও অন্যান্য দিনের মতো সাইকেলযোগে দপ্তর ছেড়ে চলে যান তিনি।

২০১০ সালে মার্ক রূট্টে যেদিন প্রথম ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হন, সেদিন থেকে প্রহরী বেষ্টিত গাড়িবহরের আড়ম্বর এড়িয়ে এভাবেই তিনি রোজ অফিসে যাতায়াত করতেন।

শিশুকল্যাণে দেওয়া অর্থ সহায়তা সম্পর্কিত এক কেলেঙ্কারির রাজনৈতিক দায়ভার নিয়ে গত শুক্রবার সম্পূর্ণ ডাচ সরকার পদত্যাগ করে। ওই কেলেঙ্কারিতে ন্যায্য সহযোগিতা পাওয়া হাজার হাজার দম্পতি সরকারি অর্থ প্রতারণার মাধ্যমে নেওয়ার দায়ে অন্যায়ভাবে অভিযুক্ত হয়েছিলেন।

এনিয়ে জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে রুট্টে বলেন, তিনি নিজের পদত্যাগের সিদ্ধান্ত রাজা উইলেম-অ্যালেক্সান্ডার’কে জানিয়েছেন। একইসঙ্গে অভিযুক্ত অভিভাবকদের ক্ষতিপূরণে তার সরকার অতিদ্রুত ব্যবস্থা নেবে বলেও প্রতিশ্রুতি দেন।

তিনি বলেন, ‘সম্পূর্ণ ব্যবস্থাটি যে ব্যর্থ তা নিয়ে সকলের সঙ্গে আমরাও একমত। এর দায় আমাদের মাথা পেতে নিতে হবে। সেজন্যেই আমি নিজের এবং নিজ মন্ত্রীসভার সকলের পদত্যাগের প্রস্তাব রাজার কাছে দিয়েছি। তার সম্মতি আসা মাত্রই আমরা পদত্যাগ করব।’

ডাচ প্রধানমন্ত্রীর এই সিদ্ধান্ত অবশ্য প্রতীকী। কারণ নেদারল্যান্ডে আগামী ১৭ মার্চ জাতীয় নির্বাচনের মাধ্যমে নতুন জোট সরকার গঠনের আগপর্যন্ত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অংশ হিসেবে রুট্টে নিজ দপ্তরেই নিয়োজিত থাকবেন।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন