বিনা বিচারে দুই ফিলিস্তিনি নেতার আটকাদেশ বাড়াল ইসরায়েল

  


পিএনএস ডেস্ক: ইহুদিবাদী ইসরায়েল বিনা বিচারে দুই জন ফিলিস্তিনি কর্মকর্তার আটকাদেশ বাড়িয়েছে। কথিত প্রশাসনিক আটকাদেশ আইনের আওতায় এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে যে আইনে ফিলিস্তিনি বন্দিদেরকে বিনা বিচারে অনির্দিষ্টকালের জন্য আটক রাখা যায়।

ফিলিস্তিনি তথ্য কেন্দ্র জানিয়েছে, ইসরায়েলের একটি আদালত ফিলিস্তিনি কর্মকর্তা শেখ রায়েদ সালাহ’র আটকাদেশ ছয় মাসের জন্য বাড়িয়েছে। তার আইনজীবী খালেদ জাবারকা জানিয়েছেন, রায়েদ সালাহকে গত ছয় মাস ধরে নির্জন সেলে রাখা হয়েছে এবং নতুন করে আরো ছয় মাসের আটকাদেশ দেয়ায় তাকে টানা এক বছর নির্জন সেলে কাটাতে হবে।
জাবারকা বলেন, ইহুদিবাদী ইসরায়েল সালাহকে নিছক তার ধর্মীয় বিশ্বাস ও মতাদর্শের কারণে আটক করেছে। তার বিরুদ্ধে কোনো ধরনের ফৌজদারি অপরাধের অভিযোগ আনা সম্ভব হয়নি।

ইসরায়েলের আরেকটি আদালত ফিলিস্তিনের সাবেক কুদস বিষয়ক মন্ত্রী খালেদ আবু আরাফার আটকাদেশও চার মাসের জন্য বাড়িয়েছে। ইসরায়েলি গোয়েন্দা সংস্থা শিন বেত ৫৯ বছর বয়সী আবু আরাফাকে গত বছরের নভেম্বরে পশ্চিম তীরের রামাল্লা থেকে আটক করে। এরপর তাকে বিনা বিচারে চার মাসের আটকাদেশ দেয়া হয় যা শিগগিরই শেষ হতে যাচ্ছে। তবে সে আটকাদেশ শেষ হওয়ার পর তার আটকের মেয়াদ আরো চার মাসের জন্য বাড়ানো হলো।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন