তালেবান নেতাদের সঙ্গে এবার আলোচনা শুরু ভারতের

  

পিএনএস ডেস্ক : দীর্ঘদিনের অবস্থান থেকে সরে এলো ভারত। এই প্রথম আফগানিস্তানের তালেবানের কোনো গোষ্ঠী এবং নেতাদের সঙ্গে আলোচনা শুরু করল নয়াদিল্লি।

এ উদ্যোগ আফগানিস্তানের ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে বলে মনে করছে সংশিষ্ট মহল। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

গত বছর ফেব্রুয়ারিতে তালেবানের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরের পর থেকেই ক্রমশ আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করে নিচ্ছে আমেরিকা।

তৎকালীন মার্কিন পররাষ্ট্র সচিব মাইক পম্পের উপস্থিতিতে সেই চুক্তিতে স্বাক্ষর করা তালেবান নেতা মুল্লাহ বরাদরের সঙ্গেই আলোচনা শুরু করেছে নয়াদিল্লি।

নাম গোপন রাখার শর্তে এক কর্মকর্তা জানান, ভারতীয় নিরাপত্তা কর্মকর্তারাই সেই আলোচনা চালাচ্ছেন। তবে তারা স্পষ্টভাবে বুঝিয়ে দিয়েছেন, পাকিস্তান ও ইরানের মদদপুষ্ট তালেবান নেতাদের সঙ্গে কথা বলা হচ্ছে না।

পাকিস্তানের জঙ্গি সংগঠনগুলোর মদদপুষ্ট হক্কানি বা কোয়েটা সুরার সঙ্গেও কোনোরকম আলোচনায় যেতে নারাজ ভারত। তালেবানের যে গোষ্ঠীগুলো ‘জাতীয়তাবাদী’ হিসেবে পরিচিত, সেগুলোর জন্যই আলোচনার দরজা খুলে দেওয়া হয়েছে।

অথচ এতদিন কোনোভাবেই তালেবানের সঙ্গে আলোচনার টেবিলে বসতে চায়নি ভারত।

ভারত স্পষ্ট করে বলেছে, প্রেসিডেন্ট আসরাফ গণি, সাবেক প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাইসহ আফগানিস্তানের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আলোচনার পাশাপাশি সমান্তরালভাবে তালেবানদের সঙ্গে কথাবার্তা চালিয়ে যাবে নয়াদিল্লি।

কিন্তু কেন আচমকা দীর্ঘদিনের অবস্থান থেকে সরে এলো ভারত? গেটওয়ে হাউসের আন্তর্জাতিক নিরাপত্তাবিষয়ক ফেলো সমীর পাটিলের মতে— মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর আফগানিস্তানের পরিস্থিতি কেমন হবে, তা নিয়ে অনিশ্চয়তা আছে।

পিএনএস/এসআইআর

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন