শিশুদের নামাজে আনতে মসজিদেই শিশুপার্ক গড়লেন ইমাম

  

পিএনএস ডেস্ক : শিশুদের নামাজ ও কোরআন শিক্ষার প্রতি আকৃষ্ট করতে মসজিদের সঙ্গেই ছোটখাটো একটি শিশুপার্ক গড়ে তুলেছেন ইমাম। তুরস্কের কোকেলি প্রদেশের বাসিসকেলে জেলায় এই ঘটনা দেশটিতে আলোড়ন তুলেছে।

ডেইলি সাবাহ জানায়, গ্রীষ্মকালীন কোরআন ক্লাসে শিশুদের কম উপস্থিতি দেখে চিন্তিত হয়ে পড়েন শহরের মারকেজ মসজিদের ইমাম কাদির সেলেকিজ। এমন পরিস্থিতিতে শিশুদের নামাজ ও কোরআন ক্লাসের প্রতি আকৃষ্ট করতে মসজিদের সঙ্গে নিজ উদ্যোগে গড়ে তোলেন একটি মিনি শিশুপার্ক।

ইমামের এমন উদ্যোগে এলাকায় সাড়া ফেলে। কোরআন শিক্ষার পাশাপাশি বিনোদন ও খেলাধুলার সুযোগ থাকায় মসজিদে শিশুদের সংখ্যাও বৃদ্ধি পায়।

১০ বছর ধরে মসজিদটিতে ইমামের দায়িত্ব পালন করছেন কাদির সেলেকিজ। এই শিশুপার্কটি গড়ে তুলতে তিনি স্থানীয় প্রতিষ্ঠান ও বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সহায়তা নেন।

প্রতি সোমবার ক্লাস শেষে শিশুদের জন্য নাটকও পরিবেশিত হয় এখানে। শিশুদের পপকর্ন এবং চকলেটও উপহার দেওয়া হয়। ইমামের এমন প্রশংসিত উদ্যোগে মসজিদটিতে শিশুদের সংখ্যা এক বছরেই ৩০ জন থেকে ১৫০ জনে উঠে আসে। পরবর্তী বছরের জন্য রেকর্ডসংখ্যক ২৫০ জন শিশুর নাম রেজিস্ট্রেশন হয়।



কাদির সেলেকিজ বলেন, “আমাদের শিশুকালে আমরা মসজিদে খেলতাম আর বড়রা নামাজ পড়ত। অনেক সময় তারা আমাদের বকাবকি করত। সে সময় এটি আমাকে আহত করত। পরবর্তীতে আমার যখন সুযোগ আসল, তখন আমি উদ্যোগ নিলাম শিশুদের খেলাধুলার মাধ্যমে মসজিদের প্রতি আকৃষ্ট করে তুলতে।”

বাড়ি থেকে মসজিদ দূরে হয়ে যাওয়ায় নিয়মিত নামাজে এবং ক্লাসে আসত না অনেক শিশু। তবে খেলাধুলার ব্যবস্থা করে দেওয়ার পর অনেকেই এখন আগ্রহী হওয়া শুরু করেছে বলে তিনি জানান।

সিরিয়ায় জন্ম নেওয়া এক কিশোরী এলিফ হাসানাতু এখানকার কোরআন ক্লাসের শিক্ষার্থী। সে জানায়, একই সঙ্গে কোরআন শিক্ষা এবং খেলাধুলার সুযোগ পেয়ে তারা খুব খুশি। এখানকার শিক্ষকদের কাছ থেকে আরবি শিখতে পেরে সে গর্বিত।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech