বাগেরহাটে বনদস্যুর ১৩ সদস্য জামিনে মুক্ত

  



পিএনএস, বাগেরহাট : সুন্দরবনের কথিত বনদস্যু সাগর বাহিনীর প্রধানসহ ১২ সদস্যকে জামিন দিয়েছে বাগেরহাটের একটি আদালত।

বৃহস্পতিবার (০১ ডিসেম্বর) বিকেলে বাগেরহাট জেলা ও দায়রা জজ ফজলুল হকের আদালতে বনদস্যুদের হাজির করা হলে আদালতের বিচারক শুনানি শেষে তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।

বনদস্যুরা হলেন- কথিত বনদস্যু ‘সাগর বাহিনী’র প্রধান আলমগীর শেখ ওরফে সাগর (৩৫), কামরুল ফকির (২৭), আব্দুল মালেক (৩৮), কাদের শেখ (৩৮), হাফিজুর রহমান শেখ (৪৬), কাবীর সরদার (৩৪), দেলোয়ার শেখ (৩৮), হাসান সরদার (২২), নান্না ফকির (২৯), তৌহিদুল ইসলাম (৪৩), রাজু শেখ(২৮), লিটন হাওলাদার (৩৪) এবং তারিকুল গাজী (৩২)। এদের বাড়ি বাগেরহাটের মংলা, রামপাল ও মোরেলগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে।

বাগেরহাট জেলা ও দায়রা জজ আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের কৌসুলি শেখ মোহাম্মদ আলী বলেন, ১৯ অক্টোবর বনদস্যু সাগর বাহিনীর প্রধান আলমগীর শেখ ওরফে সাগরসহ ১৩ জন দস্যুতা ছেড়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ আত্মসমর্পণ করে। সেই থেকে তারা বাগেরহাট জেলা কারাগারে আটক ছিলেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে তাদের আদালতে হাজির করে জামিন চেয়ে আবেদন করলে বিচারক শুনানি শেষে তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, ১৯ অক্টোবর বনদস্যু সাগর বাহিনীর ১৩ জন সদস্য আত্মসমর্পণ করে। সে সময় তারা ৮টি বিদেশি একনালা বন্দুক, ৩টি দেশীয় একনালা বন্দুক, ১টি বিদেশি দোনালা বন্দুক, ২টি ২২ বোর বিদেশি এয়ার রাইফেল, ০৪টি এলজি এবং ২টি দেশীয় কাটা রাইফেলসহ মোট ২০টি দেশি-বিদেশি আগ্নেয়াস্ত্র এবং বিভিন্ন ধরনের ৫৯৬ রাউন্ড গুলি জমা দেন।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech