‘তারা বিচার বিভাগের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না’

  

পিএনএস ডেস্ক: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, ষোড়শ সংশোধনী বাতিল করে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ সর্বসম্মতিক্রমে যে রায় প্রকাশ করেছেন তা দেশের ইতিহাসে মাইলফলক। এ রায়ের ফলে বিচার বিভাগের স্বাধীনতা ও আইনের শাসন ফিরে এসেছে। যারা এ রায়ের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছে তারা বিচার বিভাগের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না। যারা এই রায়ের বিরুদ্ধে তারা কি বিচার বিভাগের স্বধীনতার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। তারা মনে করে আন্দোলন করে রায় পাল্টাবেন। আন্দোলন করে এই রায় পাল্টানো সম্ভব নয়। আপনারা সুপ্রিম কোর্টের মানসম্মান ও ঐতিহ্যের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছেন।

সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলে আপিল বিভাগের রায় প্রকাশের পর রায়ের পক্ষে-বিপক্ষে সরকার সমর্থক ও বিএনপি সমর্থক আইনজীবীদের পাল্টাপাল্টি প্রতিবাদ সভা, মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল অব্যাহত রয়েছে।

দেশব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে বুধবার বিএনপি-সমর্থক আইনজীবীরা প্রতিবাদ সভা ও মিছিল করেছেন। সভায় মওদুদ এসব কথা বলেন।

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহার সঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও নেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সাক্ষাৎ জনগণ সহজভাবে নেয়নি বলে সভায় বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা উল্লেখ করেন।

মওদুদ বলেন, এ বি এম খায়রুল হকের প্রধান বিচারপতি হওয়ার কোনো যোগ্যতা ছিল না তা তিনি প্রমাণ করেছেন। সংবিধানের ত্রয়োদশ সংশোধনীর আদালতে ঘোষিত রায়ে তিনি আরও দুটি সংসদ নির্বাচন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে রাখার কথা বলেন। কিন্তু তার অবসরে যাওয়ার ১৬ মাস পরে যে লিখিত রায় দিয়েছেন সেখানে এই বিধান রাখা হয়নি। এর থেকে প্রমাণ হয় তিনি নিম্নমনের পরিচয় দিয়েছেন। কোনো বিচারপতি এমনটা করতে পারেন না।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনে সমিতির সভাপতির কক্ষের সামনে প্রতিবাদ সভা করেন বিএনপি সমর্থক আইনজীবীরা। জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের ব্যানারে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আরও বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন, সমিতির সম্পাদক ও জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের মহাসচিব মাহবুব উদ্দিন খোকন প্রমুখ।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech