৫৭ শিক্ষার্থীর শিক্ষা কার্যক্রম চলবে, বঞ্চিতকে ভর্তির নির্দেশ

  


পিএনএস ডেস্ক: রাজধানীর উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজের ৫৭ শিক্ষার্থীর শিক্ষা কার্যক্রমের ওপর থাকা হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ বাতিল করেছেন সর্বোচ্চ আদালত।

একই সঙ্গে রিট আবেদনকারীর সন্তানকে ওই কলেজে ৭ দিনের মধ্যে ভর্তি করে নেওয়ার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে আদেশের জন্য বুধবার (১৭ জানুয়ারি) দিন ধার্য ছিল। দায়িত্ব পালনরত প্রধান বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহহাব মিঞার নেতৃত্বাধীন পূর্ণাঙ্গ আপিল বেঞ্চ দিন ধার্য করে মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) এই আদেশ দেন।

বুধবার আদালতে আবেদনের পক্ষে আইনজীবী এ এম আমিন উদ্দীন এবং কলেজের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস।

গত ১১ জানুয়ারি ওই ৫৭ শিক্ষার্থীর একাডেমিক কার্যক্রমের ওপর ৩০ দিনের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিলেন হাইকোর্ট।

আবেদনে বলা হয়, গত ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে মেধাস্কোর অনুযায়ী ছাত্র ভর্তি না করে ‘আগে আসলে আগে ভর্তির সুযোগ’ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে কলেজ।

এতে বলা হয়, ১৭ ডিসেম্বর বেলা ১১টার মধ্যে আগে আসলে আগে ভর্তির সুযোগ পাবেন। তবে বেলা ১১টার পর তারিকুল ইসলাম নামে এক শিক্ষার্থী (যার মেধা স্কোর ২৫৭) কলেজে গিয়ে জানতে পারেন ইতোমধ্যে চলতি ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে সাধারণ কোটায় ৫৭ শিক্ষার্থীর ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়ে গেছে।

ভর্তির সর্বনিম্ন স্কোর ছিল ২৫০.৪৫। তারিকুলের দাবি, মেধাস্কোর অনুযায়ী ভর্তি করলে ভর্তির সুযোগ পেতেন তিনি।

পরে ২ জানুয়ারি তারিকুলের বাবা নজরুল ইসলাম কলেজের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পদ্ধতি চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech