ইলিশ ধরার অপরাধে ১৬ জন জেলে

  



পিএনএস ডেস্ক: ভোলার মেঘনায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ ধরার অপরাধে ১৬ জেলেকে দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। রোববার রাত ১০টায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মৃধা মো. মোজাহিদুল ইসলাম এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- আলমগীর, রিয়াজ, রাশেদ, নাজিম, মাসুদ, আবু তাহের, সাইফুল, রফিক, সাজাহান, করিম, মারুফ, বাচ্চু, রাসেল, রশিদ মাঝি, রশিদ রাঢী ও সুজন। তাদের বাড়ি সদরের রাজাপুর ইউনিয়নের রামদাসপুর গ্রামে।

ভোলা সদর উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান জানান, ইলিশের অভয়াশ্রমে ইলিশ সংরক্ষণের লক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসন ও মৎস্য বিভাগের নেতৃত্বে পুলিশ ও নৌ পুলিশ নিয়ে যৌথ অভিযানে পরিচালনা করা হয়। এ সময় তিনটি ট্রলার নিয়ে ইলিশ ধরার অপরাধে মেঘনার রামদাসপুরসহ বিভিন্ন পয়েন্টে থেকে ৫ হাজার মিটার কারেন্ট জালসহ ১৬ জেলেকে আটক করে। পরে তাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতে সোপর্দ করা হলে প্রত্যেকের ২ মাসের কারাদণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এ সময় এদের কাছ থেকে ৫ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করে। আটককৃত জাল মেঘনায় তীরে পুড়িয়ে নষ্ট করে দেয়া হয়েছে।
এদিকে অপর এক অভিযানে কোস্টগার্ড দক্ষিণ জোনের একটি দল রামদাসপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে প্রায় ১২ কোটি টাকার কারেন্টজালসহ বিভিন্ন ধরনের জাল জব্দ করেছে।

উল্লেখ্য, ইলিশের অভয়াশ্রমে মেঘনার ও তেতুরিয়া নদীর ১৯০ কিলোমিটার এলাকায় মার্চ-এপ্রিল দুই মাস ইলিশসহ সব ধরনের মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে মৎস্য বিভাগ।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech