আখাউড়ায় ভ্রাম্যমান আদালতে ২ নারী মাদক ব্যবসায়ির কারাদণ্ড

  

পিএনএস, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আখাউড়ায় ভ্রাম্যমান আদালতে ফাতেমা বেগম (৩০) ও সারবানু (৪৫) নামে দুই মহিলা মাদক ব্যবসায়িকে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

গত মঙ্গলবার চলমান মাদক বিরোধী অভিযানের অংশ হিসাবে আখাউড়া আজমপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়। বিজিবির সহযোগীতায় এই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্টেট মোহাম্মদ শামছুজ্জামান।জানাগেছে, মঙ্গলবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শামছুজ্জামানের নেতৃত্বে বিজিবির সার্বিক সহযোগিতায় পরিচালিত অভিযানে আযমপুর রেলস্টেশন এলাকাসহ বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশী কার্যক্রম চলে।

তল্লাশি ও অভিযানে রাত দেড়টায় মোছা ফাতেমা বেগম ও মোছাঃ সারবানুকে ৪ কেজি গাজা জাতীয় মাদক অভিনব কায়দায় পায়ে স্কচটেপ দিয়ে বেধে পাচারকালে আযমপুর রেলস্টেশন এলাকা থেকে ভ্রাম্যমান আদালত আটক করে । মাদক পাচারের এই কৌশল দেখে উপস্থিত সবাই বিষ্ময় প্রকাশ করে। নিজ হেফাজতে মাদক বহন করার অপরাধে তাদের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ১৯৯০ এর ধারা ৯ লংঘণ করায় একই আইনের ১৯(১) এর ৭(ক) ধারা মোতাবেক মোছা ফাতেমা বেগমকে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও মোছাঃ সারবানুকে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ০২ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়।আরো জানাগেছে, আযমপুর রেলস্টেশন দিয়ে মাদকজাতীয় দ্রব্য পাচার হয় মর্মে সাধারণ জনগণের অভিযোগ রয়েছে।

ভ্রাম্যমান আদালত ও অভিযানে সহায়তাকারী সাধারণ জনতা তাৎক্ষনিক সাজা দেয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে সবসময় এ ধরণের কার্যক্রম চালানোর জোর দাবী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট উপস্থাপন করেন। সাধারণ জনগনের অভিপ্রায় অনুযায়ী উপজেলা প্রশাসনের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শামছুজ্জামান জানিয়েছেন।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech