ট্রাম্পের কাছে প্রিয়ার অভিযোগ, মামলা হতে পারে আজ

  


পিএনএস ডেস্ক: বাংলাদেশের সংখ্যালঘু পরিস্থিতি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে দেওয়া প্রিয়া সাহার তথ্য ‘ডাহা মিথ্যা’ বলে অভিহিত করেছে সরকার। ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গতকাল শনিবার প্রিয়ার বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছে। এদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, অভিযোগ প্রমাণ করতে না পারলে প্রিয়ার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বক্তব্যের জন্য প্রিয়াকে রাষ্ট্রদ্রোহী হিসেবে অভিহিত করে তাঁর বিরুদ্ধে অবশ্যই শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, প্রিয়ার বক্তব্য আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের অংশ। তাঁকে আইনি প্রক্রিয়ায় ফিরিয়ে আনতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কাজ করছে। অন্যদিকে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সাইয়েদুল হক সুমন এক ভিডিও বার্তায় ঘোষণা দিয়েছেন, আজ রবিবার আদালত খোলার পরপরই প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে তিনি রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করবেন।

ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গতকাল সকালে এক জরুরি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেছে, গত ১৮ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে প্রিয়া সাহা নামে এক বাংলাদেশির কথোপকথনের ভিডিও বাংলাদেশ সরকারের নজরে এসেছে। সেখানে প্রিয়া সাহাকে বাংলাদেশ থেকে তিন কোটি ৭০ লাখ হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান নিখোঁজ হয়ে যাওয়ার কথা বলতে দেখা গেছে। তিনি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে বলেছেন, তাঁর জমি মুসলমান মৌলবাদীরা দখল করে নিয়েছে। হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টানরা যাতে বাংলাদেশে থাকতে পারে সে জন্য তিনি ট্রাম্পের সহযোগিতা চেয়েছেন। ধর্মীয় স্বাধীনতাকে এগিয়ে নিতে গত ১৬ থেকে ১৮ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর আয়োজিত মন্ত্রিপর্যায়ের সম্মেলনে অংশ নেন প্রিয়া সাহা।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, ‘প্রিয়া সাহা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে যে ডাহা মিথ্যা বলেছেন, বাংলাদেশ সরকার তার তীব্র প্রতিবাদ এবং সর্বোচ্চ কড়া ভাষায় তাঁর মন্তব্যের নিন্দা জানায়। আপাতদৃষ্টিতে মনে হচ্ছে, ভবিষ্যৎ কোনো উদ্দেশ্য থেকে বাংলাদেশকে হেয় করতে প্রিয়া সাহা মিথ্যা ও বানোয়াট গল্প সাজিয়েছেন।’

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আরো বলেছে, ‘বাংলাদেশ ধর্মীয় স্বাধীনতা ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির আলোকবর্তিকা, যেখানে বিভিন্ন ধর্মের বিশ্বাসীরা বহুকাল ধরে শান্তিতে বসবাস করছে। জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমারের ১১ লাখ নাগরিককে (রোহিঙ্গা) সাময়িক আশ্রয় দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় বাংলাদেশ সরকারের মানবিক আচরণ ও মহানুভবতা সারা বিশ্বে প্রশংসিত হয়েছে।’

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, বাংলাদেশ সরকার আশা করে, এ ধরনের বড় আন্তর্জাতিক অনুষ্ঠানের আয়োজকরা দায়িত্বশীল এমন ব্যক্তিদের আমন্ত্রণ জানাবেন যাঁরা ধর্মীয় স্বাধীনতার মূল্যবোধ ও প্রকৃত চেতনা উৎসাহিত করার লক্ষ্যে ভূমিকা রাখবেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন গত শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রে একটি সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে প্রিয়া সাহার অভিযোগ নাকচ করেন। তিনি বলেন, বিশেষ মতলবে প্রিয়া সাহা এমন উদ্ভট কথা বলেছেন।

ঢাকার ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘দেশদ্রোহী হিসেবে প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রসেস (প্রক্রিয়া) শুরু হয়ে গেছে।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান গতকাল সকালে ঢাকার ধানমণ্ডিতে নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের বলেন, ‘প্রিয়া সাহার কাছে তাঁর অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাওয়া হবে। আমরা জিজ্ঞাসা করব—কার বাড়িঘর পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে, আর আমরা সঠিক তদন্ত করিনি?’

অন্যদিকে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া গতকাল দুপুরে ঢাকায় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনে (বিএফডিসি) এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, প্রিয়া সাহার অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট। বাংলাদেশে চলমান সব উন্নয়ন, গণতন্ত্র, সার্বভৌমত্ব ও অগ্রযাত্রাকে বাধাগ্রস্ত করতে এটি আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র।

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী দিনাজপুরে এক অনুষ্ঠানে বলেছেন, প্রিয়া সাহার অভিযোগের পেছনে নিশ্চয়ই কোনো গোষ্ঠীর স্বার্থ আছে। প্রিয়া সাহার অভিযোগ প্রসঙ্গে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক হবিগঞ্জে সাংবাদিকদের বলেছেন, বাংলাদেশের মতো সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিশ্বে আর কোথাও নেই।

প্রিয়ার বক্তব্যের প্রতিবাদে মানববন্ধন : এদিকে প্রিয়ার বক্তব্যের প্রতিবাদে গতকাল দুপুরে ঢাকার ধানমণ্ডিতে তাঁর বাড়ির সামনে ‘সচেতন ছাত্রসমাজের’ ব্যানারে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে ২০-২৫ জন তরুণ। ‘সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়’ ব্যানারেও কয়েকজন তরুণ গতকাল বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে রাজু স্মৃতি ভাস্কর্যের সামনে প্রিয়া সাহাকে আইনের আওতায় আনার দাবিতে কর্মসূচি পালন করেছে।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech