সুপ্রিম কোর্টের এফিডেভিট শাখার সবাইকে বদলি

  

পিএনএস ডেস্ক : অনিয়মের অভিযোগের সুপ্রিম কোর্টের এফিডেভিট শাখায় সব কর্মকর্তা কর্মচারীকে বদলি করেছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন।

সুপ্রিম কোর্টের স্পেশাল অফিসার ব্যারিস্টার মো. সাইফুর রহমান জানান, সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের এফিডেবিট শাখার সবাইকে বদলি করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছেন সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন।

তবে কতজনকে বদলি করা হয়েছে তার সঠিক সংখ্যা বলতে পারেননি তিনি।

এর আগে সোমবার সকালে একটি মামলার শুনানিকে কেন্দ্র করে পাঁচ সদস্যের আপিল বেঞ্চে প্রধান বিচারপতি সুপ্রিম কোর্টের এফিডেভিট শাখায় সিসি ক্যামেরা বসানোর পরও অনিয়ম বন্ধ করতে না পারায় হতাশা প্রকাশ করেন।

ওই সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

নির্ধারিত মামলার শুনানিতে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আদালতকে জানান, একটি মামলা সোমবার তিন নম্বর সিরিয়ালে আপিল বিভাগের কার্যতালিকায় থাকার কথা ছিল। কিন্তু অদৃশ্যভাবে তা ৮৯ নম্বর সিরিয়ালে গেছে। কীভাবে গেল তা আপিল বিভাগের কাছে জানতে চেয়ে তিনি বলেন, অনেকেই মামলার তালিকা ওপর-নিচ করে কোটিপতি বনে গেছেন।

এ সময় প্রধান বিচারপতি বলেন, এফিডেভিট শাখা কক্ষে সিসি ক্যামেরা বসিয়ে দুর্নীতি বন্ধ করা যাচ্ছে না। এখন সবাই বাইরে এসে এফিডেভিট করে। সিসি ক্যামেরা বসিয়েও অনিয়ম রুখা যাচ্ছে না।

প্রধান বিচারপতি বলেন, রাষ্ট্রপক্ষের অনেক আইনজীবীও আদালতে আসেন না। বেতন বেশি হওয়ার কারণে এমন হচ্ছে। বেতন কম হলে তারা ঠিকই কষ্ট করে আদালতে আসতেন। এরপর প্রধান বিচারপতি তাৎক্ষণিক এক আদেশে ডেপুটি রেজিস্ট্রার মেহেদী হাসানকে আপিল বিভাগে তলব করেন। তবে মামলার সিরিয়াল করা নিয়ে মেহেদী হাসানের ব্যাখ্যায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ। পরে ডেপুটি রেজিস্ট্রারকে সঠিকভাবে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ দেন প্রধান বিচারপতি।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech