কানে আরশোলার বাসা!

  

পিএনএস ডেস্ক : চীনের ২৪ বছর বয়সী এলভির ডান কানে বেশ কয়েকদিন ধরেই প্রচণ্ড ব্যথা হচ্ছিল। সেই ব্যথা চরমে ওঠায় বিছানায় শুয়ে যন্ত্রণায় ছটফট করছিলেন তিনি। সে সময় তার পরিবারের লোকজন টর্চের আলোতে দেখেন, এলভির কানের মধ্যে রয়েছে বড় আকারের আরশোলা!

এরপর তাকে নিয়ে যাওয়া হয় হুইজহাউ শহরের সানহে হাসপাতালে। সেখানে তার কান পরীক্ষা করেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা। আর সেটা করতে গিয়েই চমকে যান চিকিৎসকরা। তারা দেখেন, এলভির কানের মধ্যে আরশোলার পুরো পরিবার রয়েছে।

সানহে হাসপাতালের চিকিৎসক ঝং ইজিং বলেন, কানে প্রচণ্ড যন্ত্রণা নিয়ে আমাদের কাছে এসেছিলেন তিনি। কানের ভিতর থেকে একটি বড় আরশোলা ছাড়াও ১০টার বেশি বাচ্চা আরশোলা বের করেছি আমরা। কানের ভিতরে ঘুরে বেড়াচ্ছিল সেগুলো।

তবে আরশোলার পরিবার কতদিন ওই ব্যক্তির কানে বাসা বেঁধে ছিল, সে ব্যাপারে চিকিৎসকরা কিছু জানাতে পারেননি। কিন্তু কিভাবে এটা সম্ভব হলো সে ব্যাপারে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমকে ওই চিকিৎসক জানান, ওই ব্যক্তি বিছানার পাশেই খাবারের প্যাকেট রেখে ঘুমাতেন। সেই খাবার খেতে এসেই আরশোলারা তার কানে ঢুকে থাকতে পারে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech