মায়ের আইপ্যাড থেকে ১১ লাখ টাকার অ্যাপ কিনল ছ’বছরের শিশু

  

পিএনএস ডেস্ক : মায়ের মোবাইল নিয়ে খেলছিল ছ’বছরের ছেলে। সেই খেলার ছলেই মায়ের অ্যাকাউন্ট থেকে গচ্চা গেল কয়েক হাজার ডলার। কীভাবে গচ্চা গেল এত টাকা?

নিউ ইয়র্ক পোস্টের খবর অনুযায়ী, জেসিকা জনসনের ছেলে অ্যাপলের ভার্চুয়াল স্টোর থেকে একাধিক অ্যাপ কিনেছে। তার দরুণই অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা কেটে নেওয়া হয়েছে। বিষয়টি সামনে আসতেই মাথায় হাত পড়েছে জেসিকার।

জানা গেছে, গত জুলাই মাসের ঘটনা। ৮ জুলাই জেসিকার অ্যাকাউন্ট থেকে ২৫ বার টাকা কাটে। এরপরই পুলিশের দ্বারস্থ হন তিনি। ভেবেছিলেন কোনও জালিয়াতের খপ্পরে পড়েছেন তিনি। অ্যাকাউন্টে অ্যাপল স্টোরে টাকা ট্রান্সফার হওয়ার কথা উল্লেখ ছিল। যা দেখে জেসিকা ভেবেছেন কোনও ভুয়া সংস্থা অ্যাপলের নাম করে টাকা হাতিয়েছে। ছ’মাস পর বিষয়টা স্পষ্ট হলো।

জেসিকার ছেলে জর্জ জনসন জুলাই মাস থেকেই অনলাইন গেমিং-এর জন্য মায়ের আইপ্যাড ব্যবহার করছিল। সেই সময় থেকেই জেসিকার অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা কাটতে শুরু করে। ৮ জুলাই ২৫ বার টাকা কেটেছিল। পরে জানতে পারেন, তার ছেলে একের পর এক অ্যাপ আপডেট করেছে। কিন্তু এখন আর কিছু করার নেই।

অ্যাপলের কাছ টাকা ফেরত চেয়েছিলেন জেসিকা। কিন্তু তার অনুরোধ খারিজ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। কারণ ৬০ দিনের মধ্যে ওই আবেদন জানাননি তিনি। অ্যাপেলের পালটা অভিযোগ, জেসিকার উচিৎ ছিল অ্যাই প্যাডের প্যারেনটাল লক অন রাখা। তিনি তা করেননি। তাই এই কাণ্ড ঘটেছে।

এদিকে লকডাউনে জেসিকার আর্থিক অবস্থা আরও খারাপ হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, তার বেতনের ৮০ শতাংশ কেটে নেওয়া হচ্ছে। পরিবার চালাতে সম্পত্তি বন্ধক রাখতে হচ্ছে। এমন অবস্থায় অ্যাপেল ওই টাকা ফেরত দিলে তার উপকার হত।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন