আড়াই হাজারের বাটি পাঁচ কোটিতে বিক্রি!

  

পিএনএস ডেস্ক:বাটিটা কিনতে লেগেছিল ৩৫ ডলার। আর সেটাই নিলামে বিক্রি হলো সাত লাখ ২০ হাজার ডলারে। বাটির কল্যাণেই রাতারাতি কপাল ফিরল এক আমেরিকানের।

সাদা রঙের পোর্সিলিনের বাটি। আকারে ছোটই। তার উপর নীল রঙের অসাধারণ সুন্দর কাজ। মূলত ফুলের নকশা। বাড়ির কাছেই ইয়ার্ড সেলে এই বাটিটা দেখে পছন্দ হওয়ায় ৩৫ ডলার(আড়াই হাজার টাকা) দিয়ে কিনে ফেলেছিলেন এক আমেরিকান। আর এই বাটিই তার ভাগ্য ফিরিয়ে দিল। জলের দামে কেনা বাটি বিক্রি হলো সাত লাখ ২১ হাজার ডলারে(পাঁচ কোটি টাকার বেশি)।

হবে নাই বা কেন। এ তো আর যে সে বাটি নয়। ১৫ শতকে চীনের মিং সাম্রাজ্যের সময়ের বাটি। বিশ্বে এই ধরনের বাটি আছে মাত্র সাতটি। নিলামকারী সংস্থা সোদেবিজ-এর চীনা শিল্প বিভাগের প্রধান একটি বিবৃতিতে বলেছেন, ‘এই ধরনের নিদর্শন পাওয়া মানে স্বপ্ন সফল হওয়া। অবিশ্বাস্য ঘটনা। চীনা শিল্প নিয়ে যারা কাজ করেন, তাদের কাছে এর মূল্য অপরিসীম।’

কানেকটিকাটের নিউ হ্যাভেনে ইয়ার্ড সেলে ঘুরতে ঘুরতে পুরাতাত্ত্বিক জিনিসের সংগ্রহকারী মার্কিন নাগরিকের চোখে পড়ে যায় বাটিটি। তার বাটিটি ভালো লেগে যায়। তার মনে হয়েছিল, এই বাটিটির কোনো বিশেষত্ব আছে। তিনি তখন বাটির ছবি ও তথ্য ইমেল করে জানান সোদেবিজ-কে। উদ্দেশ্য, বাটির কত দাম হতে পারে তা যাচাই করা।

এরপর বিশেষজ্ঞরা গিয়ে বাটিটি দেখেন। তারা বুঝতে পারেন এর মূল্য। তারপর সব কিছু যাচাই করার পর শুরু হয় নিলামের প্রস্তুতি। নিলামে দামওঠে পাঁচ লাখ ৮০ হাজার ডলার। তারপর বিভিন্ন ফি ধরে দাম দাঁড়ায় সাত লাখ ২১ হাজার ৮০০ ডলার।

এই বাটি কী করে কানেকটিকাটের ইয়ার্ড সেলে ৩৫ ডলারে বিক্রি হলো, সেটাই রহস্য।


পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন