শেখ হাসিনার প্রতি বিশ্বব্যাংকের পূর্ণ আস্থা রয়েছে

  

পিএনএস: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার সরকারের প্রতি বিশ্বব্যাংকের পূর্ণ আস্থা রয়েছে বলে জানিয়েছেন সংস্থাটির প্রধান জিম ইয়ং কিম। ঢাকায় সফররত বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট মঙ্গলবার বিকালে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে এক সৌজন্য সাক্ষাৎকালে এ কথা জানান।
বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেসসচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের এবিষয়ে অবহিত করেন।
প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব জানান, দেশের উন্নয়নের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের গৃহীত পদক্ষেপগুলোর সঙ্গে একমত প্রকাশ করেছেন বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট।
জিম ইয়ং কিম বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের অভিযোজন ও প্রশমনের বিষয়ে বিশ্বব্যাংক পুরোপুরিই অঙ্গীকারাবদ্ধ।
প্রেসসচিব জানান, বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট নিজ থেকেই জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতি মোকাবিলায় বাংলাদেশকে তহবিল আরও বৃদ্ধির ব্যাপারে সহযোগিতার ইচ্ছা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, তাঁর (বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট) বিশ্বাস বিদেশি বিনিয়োগ আকর্ষণের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের ব্যাপক সম্ভাবনা রয়েছে। এক্ষেত্রে, বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশে সহজে ব্যবসা করার সুযোগ সম্পর্কে অন্য দেশগুলোর সঙ্গে অভিজ্ঞতা বিনিময়ের প্রস্তাব দেন।
বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট গত রবিবার বিকালে বাংলাদেশে সফরে আসেন। তার সফরের আগে বিশ্বব্যাংক এক বিবৃতিতে জানায়, বাংলাদেশের ‘উন্নয়নের বিস্ময়’ নিজ চোখে দেখতে সংস্থাটির প্রধান বাংলাদেশ সফরে আসছেন। ২০১২ সালে দুর্নীতির অভিযোগ এনে পদ্মা সেতুর অর্থায়ন থেকে সরে দাঁড়ায় বিশ্বব্যাংক। চার বছরের মাথায় বাংলাদেশের উন্নয়ন ও এগিয়ে চলা দেখে বিশ্বব্যাংক নিজ থেকেই বাংলাদেশের উন্নয়নে আরও জোরালো অংশগ্রহণের আগ্রহ দেখায়। ঢাকায় সফরে পদ্মা সেতু সম্পর্কে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলেও বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট প্রসঙ্গটি কৌশলে এড়িয়ে যান। বিশ্বব্যাংক ও জাইকার মতো আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো অর্থায়ন থেকে সরে যাওয়ার পর বাংলাদেশ নিজস্ব অর্থায়নে দেশের সবচেয়ে বড় পদ্মা সেতু প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। ইতোমধ্যে এই সেতুর ৪০ ভাগের বেশি কাজ সম্পন্ন হয়েছে। ২০১৮ সালের শেষ দিকে পদ্মা সেতু দিয়ে গাড়ি চলবে বলে বিভিন্ন সময় জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

পিএনএস/মো: শ্যামল ইসলাম রাসেল


 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech