রাষ্ট্রদূতের ব্যাগ চুরি নিয়ে যা বলল রুবেল...

  


পিএনএস ডেস্ক: নেদারল্যান্ডসের রাষ্ট্রদূতের ব্যাগ চুরির সঙ্গে জড়িত গ্রেফতার রুবেল শাহবাগ, নীলক্ষেত ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় চুরি এবং ছিনতাই চক্রের সক্রিয় সদস্য। চুরির মধ্য দিয়েই অপরাধ জগতে তার পথচলা শুরু। পরে ছিনতাইয়ের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে। আগে চুরি, ছিনতাই করলেও নেদারল্যান্ডস রাষ্ট্রদূতের ব্যাগ চুরির পর প্রথমবারের মতো পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়।

গ্রেফতারের পর রিমান্ডে রাষ্ট্রদূতের ব্যাগ চুরিসহ একাধিক চুরি, ছিনতাইয়ের ঘটনায় জড়িত থাকার কথা অকপটে স্বীকার করে সে। রিমান্ড শেষে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে রুবেল ।

২১ নভেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদে আলোকচিত্র প্রদর্শনী ‘ফ্রিডম’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন নেদারল্যান্ডসের রাষ্ট্রদূত লিওনি মার্গারেথা কুয়েলিনারি। এ অনুষ্ঠানেই তার হ্যান্ডব্যাগটি চুরি হয়। দু’দিন পর চুরি যাওয়া ব্যাগে থাকা মোবাইল ফোন বসুন্ধরা সিটির এক দোকানে বিক্রি করে রুবেল।

পরে ব্যাগটি পাঁচ তলা থেকে নিচে ফেলে দেয় সে। সেখান থেকে চুরি যাওয়া ব্যাগটি উদ্ধার করে নিরাপত্তকর্মীরা। তাদের কাছ থেকে ডিবি সদস্যরা তা সংগ্রহ করে।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদে রুবেল বলেছে, ‘আগেও অনেক চুরি করেছি, কখনও ধরা পড়িনি। রাষ্ট্রদূতের ব্যাগ চুরির পর বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমে এত তোলপাড় হবে, বুঝতে পারিনি।’

গত ২১ নভেম্বর রুবেল ও তার কথিত ‘গুরু’ রবিউল ইসলাম ওরফে রবি শাহবাগ এলাকায় দিনে-দুপুরে ছিনতাইয়ের পরিকল্পনা করছিল। সড়কে অনেক ভিড় থাকায় চারুকলা অনুষদের ভেতরে ঢুকে পড়ে। রাষ্ট্রদূতের ব্যস্ততার সুযোগ নিয়ে ব্যাগটি চুরি করে রুবেল।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech