মায়ানমার দূতাবাসে হেফাজতের স্মারকলিপি

  



পিএনএস ডেস্ক : মায়ানমারের রাখাইনে সেনাবাহিনীর হাতে রোহিঙ্গা মুসলিমদের হত্যা ও নির্যাতন বন্ধের দাবিতে ঢাকায় মায়ানমার দূতাবাসে স্মারকলিপি দিয়েছে হেফাজত ইসলাম। তবে তাদের দূতাবাস অভিমুখে মিছিলের কর্মসূচি পুলিশী বাধায় পণ্ড হয়ে গেছে।
রাখাইনে রোহিঙ্গা হত্যা বন্ধের দাবিতে বৃহস্পতিবার ঢাকায় মায়ানমার দূতাবাসে স্মারকলিপি দিতে যাওয়ার আগে বায়তুল মোকাররম মসজিদ চত্বরে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের আয়োজন করে হেফাজতে ইসলাম।
সমাবেশে সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর অত্যাচার নির্যাতনের জন্য মায়ানমারকে দায়ী করে দেশটির তীব্র সমালোচনা করেন।
একই সাথে রোহিঙ্গাদের ওপর অত্যাচার বন্ধে তারা মায়ানমারের বিরুদ্ধে সম্ভাব্য সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়ার জন্যও বাংলাদেশ সরকারের প্রতি দাবি জানান।
সমাবেশের পর হেফাজত ইসলামের মিছিল স্মারকলিপি দেয়ার উদ্দেশ্যে গুলশানে মায়ানমার দূতাবাস অভিমুখে রওনা দিলেও বায়তুল মোকাররম মসজিদের একশ গজের মধ্যেই তাদের আটকে দেয় পুলিশ।
পুলিশী বাধার মুখে সেখানে কর্মসূচি শেষ করে সংগঠনটির একটি প্রতিনিধি দল দূতাবাসে গিয়ে রোহিঙ্গা গণহত্যা বন্ধ ও তাদের নাগরিক অধিকার নিশ্চিত করা সহ ৫ দফা দাবি সম্বলিত স্মারকলিপি হস্তান্তর করে।
হেফাজতে ইসলামের একজন নেতা মাওলানা আহলুল্লাহ ওয়াছেল জানান দূতাবাসের একজন কর্মকর্তা স্মারকলিপিটি গ্রহণ করেছেন।
ওয়াছেল বলেন, মায়ানমারে গণহত্যা অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে। বাংলাদেশে তাদের আশ্রয়ের ব্যবস্থা করা হোক। এ গণহত্যা বন্ধের জন্য বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে যা যা করা দরকার তা করা হোক। দরকার হলে মায়ানমারের সাথে সব সম্পর্ক ছিন্ন করা হোক। কূটনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক ছিন্ন করা হোক।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech