১২ জেলা পরিষদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান হচ্ছেন আ.লীগ প্রার্থী

  


পিএনএস ডেস্ক: প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠেয় ৬১টি জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ১২টিতে আওয়ামী লীগ মানোনীত প্রার্থী ছাড়া অন্য কোনো মনোনয়নপত্র জমা না পড়ায় ওইসব জেলার ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।

এই ১২ প্রার্থী হলেন- নারায়ণঞ্জে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আনোয়ার হোসেন, গাজীপুরে মো. আখতারুজ্জামান, মুন্সীগঞ্জে মো. মহিউদ্দিন, নেত্রকোনায় প্রশান্ত কুমার রায়, ঠাকুরগাঁওয়ে সাদেক কোরাইশী, জয়পুরহাটে আরিফুর রহমান রকেট, নাটোরে সাজেদুর রহমান খাঁন, সিরাজগঞ্জে আব্দুল লতিফ বিশ্বাস, যশোরে শাহ হাদিউজ্জামান, বাগেরহাটে শেখ কামরুজ্জামান টুকু, ঝালকাঠিতে সরদার শাহ আলম, ও ভোলায় আব্দুল মোমিন টুলু।

জেলা পরিষদ নির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমা শেষদিন বৃহস্পতিবার রাতে নির্বাচন কমিশনের সচিব মো. আবদুল্লাহ এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, আপাতত ১২টি জেলায় চেয়ারম্যান পদের প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বী। তবে এই সংখ্যা আরো বাড়তে পারে। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের সময় সীমা এখনো পার হয়নি। মনোননয়নপত্র প্রত্যাহারের পর প্রকৃত সংখ্যাটা বলে যাবে। নির্বাচন কমিশন যাচাই-বাছাই করার পর বিনা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হবে।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ১১ ডিসেম্বর। জেলা পরিষদে ভোট হবে ২৮ ডিসেম্বর সকাল ৯টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত।

ইসির জনসংযোগ বিভাগের পরিচালক আসাদুজ্জামান জানান, চেয়ারম্যান পদে মোট ১৯০টি মনোনয়নপত্র জমা পড়েছে। সদস্য পদে ৩৫৬১টি এবং সংরক্ষিত নারী আসনের সদস্য পদের জন্য ৮৯৫ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

এই নির্বাচনে সরাসরি ভোট হবে না। জেলাগুলোতে স্থানীয় সরকারের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা ভোট দিয়ে নিজ নিজ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদস্য (সাধারণ ও সংরক্ষিত) নির্বাচন করবেন। সূত্র: পূর্বপশশ্চিম

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech