প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের অপেক্ষায় ঈদের ৬ দিন ছুটি

  

পিএনএস ডেস্ক: ঈদের ছুটি ছয়দিন করার প্রস্তাব তৈরি করে এ সংক্রান্ত একটি সার-সংক্ষেপ প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের জন্য পাঠিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। আজই সারসংক্ষেপটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনুমোদন করলে তা মন্ত্রিসভায় উপস্থাপন করার কথা রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, শুধু ঈদুল ফিতরের জন্যই নয়, ঈদুল আজহার সময়ও ছয়দিন ছুটি দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

এ সংক্রান্ত সার-সংক্ষেপে বলা হয়েছে, ‘প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ইনোভেশন টিম এর ২৭তম সভার তিন নম্বর সিদ্ধান্তে পবিত্র ঈদের ছুটির সময় যানবাহনের ওপর মাত্রাতিরিক্ত চাপ, দুর্ঘটনা বৃদ্ধি ও দীর্ঘ ট্রাফিকজ্যামের সৃষ্টি হওয়া এবং ঈদের ছুটির শেষে অফিস খোলার পরবর্তী দুই একদিন কর্মচারীদের উপস্থিতি কম থাকা সত্ত্বেও অফিসের ইউটিলিটি সার্ভিস, লিফট ও গাড়ি চালু রাখতে হয়।’

সার সংক্ষেপে আরো বলা হয়, ‘ফলে বিদ্যুৎ ও গ্যাসের সর্বোচ্চ ব্যবহার হয় না।’ তাই ঈদের তিনদিনের ছুটির সঙ্গে নৈমিত্তিক ছুটির ২০ দিনের পরিবর্তে ১৪ দিন রেখে বাকি ছয়দিন দুই ঈদের সাথে তিনদিন করে সমন্বয় করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

বর্তমানে ঈদের ছুটি তিনদিন করে দেওয়া হয়। প্রস্তাবে আরো তিনদিন যোগ করার কথা বলা হয়েছে। দুই ঈদের ওই ছয়দিন নৈমিত্তিক ছুটি থেকে নেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে।

সার সংক্ষেপে আরো বলা হয়েছে, ‘অন্য ধর্মাবলম্বীরা দুই ঈদের ছুটি ভোগ করলেও তাঁদের প্রধান দুটি ধর্মীয় উৎসবের সঙ্গে দুইদিন করে চারদিন ঐচ্ছিক ছুটির প্রস্তাব করা হয়েছে। ফলে বিভিন্ন পর্বের জন্য বিদ্যমান ছুটির ভারসাম্য বজায় থাকবে।’

নতুন প্রস্তাবের ব্যাপারে ওই সার সংক্ষেপে আরো বলা হয়, ‘যানবাহনের ওপর চাপ কমবে। দুর্ঘটনা কমবে। ছুটি শেষে কর্মস্থলে ফিরে আসার প্রবণতা বৃদ্ধি পাবে। খোলার পর অফিস পুরোদমে চালু হবে।’

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech