‘দুমাস আগে পোশাকশ্রমিক পরিচয়ে ভাড়া নিয়েছিল আশুলিয়ার ঐ বাড়িটি’

  


পিএনএস, আশুলিয়া: দুমাস আগে পোশাকশ্রমিক পরিচয়ে ভাড়া নিয়েছিল আশুলিয়ার ঐ বাড়িটি বলে জানিয়েছেন আটক বাড়ির মালিক ইব্রাহিম। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এসব কথা জানান তিনি।

প্রাথমিকভাবে তিনি জানিয়েছেন, পোশাকশ্রমিক পরিচয় দিয়ে আজাদ নামে এক ব্যক্তি মাস দুয়েক আগে বাড়িটি ভাড়া নিয়েছিল।

রবিবার সকালে আটকের পর জঙ্গিদের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার সময় এসব কথা জানান তিনি।

ঢাকার অদূরে আশুলিয়ার নয়ারহাট এলাকায় সন্দেহভাজন জঙ্গি আস্তানায় থেমে থেমে বোমা ও গুলির শব্দে প্রকম্পিত হচ্ছে পুরো এলাকা।

এদিকে আস্তানার চারপাশ থেকে বাসিন্দাদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিচ্ছেন আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

জঙ্গিরা আস্তানা রয়েছে গোয়েন্দাদের এমন নিশ্চিত তথ্যের ভিত্তিতে শনিবার দিবাগত রাত ১টার দিকে নয়ারহাট চৌরাবালি এলাকার এই বাড়িটি ঘিরে ফেলে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ানের (র‌্যাব) সদস্যরা।

বাড়িটির চারপাশে র‌্যাব সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে ভেতর থেকে বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি করা হয়। প্রতিরোধের মুখে বাড়িটিকে ঘিরে আরো শক্ত অবস্থান নেয় র‌্যাব সদস্যরা। তাদের সাথে যোগ দেয় আশুলিয়া থানা পুলিশ।

এ বিষয়ে র্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া শাখার পরিচালক কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান জানান, জঙ্গিদের অক্ষত অবস্থায় নিজেদের হেফাজতে আনার চেষ্টা চলছে। এরই মধ্যে তাদের নিরস্ত্র হয়ে আত্মসমর্পণের আহ্বান জানানো হয়েছে। কিন্তু তারা এখনো গুরুত্ব দিচ্ছে না। ঐ বাড়ির মালিক ইব্রাহিমকে জঙ্গিদের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

র‌্যাবের এই কমান্ডার জানান, ধারণা করা হচ্ছে ভেতরে একাধিক জঙ্গি রয়েছে। তাই সার্বিক নিরাপত্তার কারণে আশপাশের বাসিন্দাদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

মুফতি মাহমুদ খান জানান, ঘটনাস্থলে বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট রওনা দিয়েছে। তাদের হ্যান্ডমাইকে বারবার আত্মসমর্পণের আহ্বান জানানো হচ্ছে।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech