মায়ানমারের ধৃষ্টতার সমুচিত জবাব দিতে সামরিক শক্তি প্রয়োগের আহ্বান হেফাজতের

  

পিএনএস ডেস্ক: হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবু নগরী মায়ানমার নেত্রী অং সান সুচিকে বর্তমান সভ্য সমাজের ‘বড় সন্ত্রাসী ও কসাই’ হিসেবে উল্লেখ করে মায়ানমারের একগুঁয়েমি সিদ্ধান্ত দমনে বাংলাদেশ সরকারকে প্রয়োজনে সামরিক শক্তি ব্যবহার করার আহ্বান জানিয়েছেন।

শনিবার রাতে কক্সবাজারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আল্লামা জুনায়েদ বাবু নগরী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, মায়ানমারের মুসলিম-অধ্যুষিত এলাকাকে মুসলিমশূন্য করতে দেশটির সামরিকবাহিনী নিরীহ মানুষের ওপর গুলি চালাচ্ছে। জ্বালাও-পোড়াও এবং হত্যাকাণ্ড অব্যাহত রেখেছে। বারবার প্রতিবাদের পরও আকাশসীমা লংঘন করছে তারা।

বাবু নগরী বলেন, খবরে জেনেছি, এ পর্যন্ত জান্তা বাহিনী ১৭ বার আকাশ সীমা লংঘন করেছে। তাদের এ ধৃষ্টতার সমুচিত জবাব দিতে বাংলাদেশের সামরিক শক্তি প্রয়োগ করতে হবে।

হেফাজতের ত্রাণ তৎপরতা সম্পর্কে বাবু নগরী বলেন, রোহিঙ্গারা সবচেয়ে মজলুম জাতি। মানবিক কারণে তাদের পাশে দাঁড়ানো সবার উচিত। আমরা ভাগাভাগি করে হলেও তাদের খাওয়াবো। এটি আমাদের ঈমানি দায়িত্ব।

হেফাজত নেতা বলেন, রোহিঙ্গাদের সেবার জন্য হেফাজতের প্রায় এক হাজার স্বেচ্ছাসেবক মাঠে কাজ করছে। তিন কোটি টাকার ওপর ত্রাণ সামগ্রী মজুদ করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন হেফাজতে ইসলামের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী, শিক্ষা গবেষণা ও প্রশিক্ষণ সম্পাদক মুফতি হারুন ইজহার, কক্সবাজার জেলা সেক্রেটারি মাওলানা ইয়াসিন হাবিব ও চট্টগ্রাম মহানগর (উত্তর) সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মীর ইদ্রিস প্রমুখ।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech