‘উলামায়ে কেরামগণকে ইলম দিয়ে মজলুম রোহিঙ্গাদের আলোকিত করার জিম্মাদারি নিতে হবে’

  

পিএনএস : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেছেন, রোহিঙ্গার মজলুম মুসলমানদের খেদমতে নিজেদেরকে আত্মনিয়োগ করতে হবে। অনেক মুসলমান জ্ঞানের আলো থেকে দূরে, তাদের মাঝে ইসলামের আলোয় আলোকিত করতে হবে।

আজ টেকনাফ লেদা ক্যাম্প, শাহপরী দীপ, বালখালী ক্যাম্পসহ অন্যান্য ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে মজলুম রোহিঙ্গা ওলামা হজরতদের নিয়ে অনুষ্ঠিত ওলামা সম্মেলনে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন। জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যাপক রাশেদ আনোয়ারের পরিচালনায় সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নেতা মুফতি দেলাওয়ার হোসাইন সাকী, শ্রমিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মাওলানা খলিলুর রহমান, খুলনা মহানগর আন্দোলন সভাপতি মাওলানা মুজ্জাম্মিল হক, শ্রমিক আন্দোলন কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ, খুলনা মহানগর নেতৃবৃন্দ, কক্সবাজার জেলা সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ আলী, সেক্রেটারী মাওলানা শোয়াইব আহমদ, মাওলানা ছগির আহমদ চৌধুরী ও থানা নেতৃবৃন্দ।

দীর্ঘ ২২ দিন যাবৎ চলে আসা ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের বিস্তৃত ত্রাণ কার্যক্রমের আওতায় তিনটি চিকিৎসা ক্যাম্পে এ পর্যন্ত বিশ হাজারের অধিক রোগীকে চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে। নোঙর খানা থেকে দশ হাজারের অধিক রোহিঙ্গা মুহাজিরকে খাবার পরিবেশন করা হয়েছে। চাল ডাল তেল ইত্যাদি ফ্যামিলি প্যাক বিতরণ করা হয়েছে চল্লিশ হাজার বস্তা, দুই শতাধিক টিউবওয়েল এবং ল্যাট্টিনের কাজ চলমান, রোহিঙ্গা মুহাজিরদের জন্য কয়েক শত তাবু ঘর নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে।

ইতিমধ্যে ক্যাম্পের মাঝে অবস্থিত খাল পারাপারের জন্য দুটি সাঁকো তৈরি করা হয়েছে, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করিম চরমোনাই সাহেব চরমোনাই’র নির্দেশ হলো, যতদিন যাবৎ সরকার বা জাতিসংঘ কর্তৃক রোহিঙ্গা মুহাজিরদের সম্পূর্ণ দায়িত্ব নেয়ার কার্যকরী উদ্যোগ পরিলক্ষিত না হবে, ততদিন পর্যন্ত আমাদের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। যতো হাজার তাবু ও ল্যাট্টিন তৈরির প্রয়োজন পড়বে, করে দেয়া হবে ইনশাআল্লাহ্।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কার্যক্রম সার্বিক তদারকি করছেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতা মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাকী, সহযোগিতা করছেন কক্সবাজার জেলার সভাপতি মাওলানা মুহাম্মাদ আলী। তিনি ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনায় মুখ্য ভূমিকা পালন করছেন। দলীয় কার্যক্রমের পাশাপাশি বিভিন্ন জেলা থেকে ওলামায়েকেরাম আসছেন তাদেরকে সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদান করছে ইসলামী আন্দোলনের ২০ হাজার স্বেচ্ছাসেবক।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech