দুর্গাপূজা বাঙালি ঐতিহ্যের সাক্ষ্যবহন করে: ড. শিরীন শারমিন

  

পিএনএস ডেস্ক: জাতীয় সংসদের স্পিকার ও সিপিএ নির্বাহী কমিটির চেয়ারপারসন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি বলেছেন, শারদীয় দুর্গোৎসব আবহমানকাল ধরে বাঙালির চিরায়ত ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির অংশ হয়ে আছে। দুর্গাপূজা আমাদের আপন সংস্কৃতিতে হাজার বছরের বাঙালি ঐতিহ্যের সাক্ষ্যবহন করে চলেছে। তিনি বলেন, সকল ধর্মই সত্য, সুন্দর ও কল্যাণের কথা বলে।

তিনি মঙ্গলবার রাতে রাজধানীর বনানী মাঠে গুলশান-বনানী সার্বজনীন পূজা ফাউন্ডেশন কর্তৃক দুর্গোৎসব আয়োজনের দশম বছর পূর্তি ও শারদোৎসব ১৪২৪ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন। এর আগে তিনি পূজা উদযাপন পরিষদ কর্তৃক প্রকাশিত “বোধন” স্মরণিকার মোড়ক উন্মোচন করেন।

শিরীন শারমিন বলেন, শারদীয় দুর্গাপূজা সনাতন ধর্মাবলম্বী মানুষের জন্য আনন্দের এক মিলনমেলা। দুর্গাপূজা আমাদের আপন সংস্কৃতিতে হাজার বছরের বাঙালি ঐতিহ্যের সাক্ষ্যবহন করে চলেছে। আমাদের মধ্যে সকল অশুভ প্রবৃত্তির মূলে কুঠারাঘাত করার লক্ষ্যে আবির্ভাব হয় দুর্গতিনাশিনী দুর্গার।

স্পিকার বলেন, শারদীয় দুর্গোৎসব হিন্দু সম্প্রদায়ের বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব হলেও আবহমানকাল ধরে তা বাঙালির চিরায়ত ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির অংশ হয়ে আছে। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সমাজের প্রতিটি মানুষই অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করছে, অশুভকে পরাভূত করতে এক হয়ে কাজ করছে।

তিনি আরও বলেন, এদেশে সকল ধর্মের অনুসারীরা ধর্মীয় সম্প্রীতি ও শান্তিপূর্ণভাবে এখানে বসবাস করছেন। জাতির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিল এ দেশকে একটি অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তোলা- যেখানে প্রত্যেক নাগরিক নিজ নিজ ধর্ম পালন করে দেশের জন্য কাজ করবে। অন্য ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ থেকে উঠে আসবে সহমর্মিতা, ভ্রাতৃত্ববোধ আর একতা।

গুলশান-বনানী সার্বজনীন পূজা উদযাপন ফাউন্ডেশনের সভাপতি সুভাষ চন্দ্র ঘোষের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি এ কে এম রহমত উল্লাহ, বাংলাদেশে নিযুক্ত ইতালির রাষ্ট্রদূত মারিও পালমা, বনানী সোসাইটির সভাপতি শওকত আলী দিলন এবং সাধারণ সম্পাদক সুধাংশু কুমার দাস বক্তব্য রাখেন।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech