নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে সকলকে রুখে দাঁড়াতে হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  

পিএনএস ডেস্ক : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মো. আসাদুজ্জামান খাঁন বলেছেন, নারী নির্যাতন সামাজিক ব্যাধি, এই ব্যাধির বিরুদ্ধে সকলকে রুখে দাঁড়াতে হবে। তিনি আজ বাংলা একাডেমিতে ‘নারীর অধিকার (যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্য) বিষয়ক চেঞ্জমেকারদের জাতীয় সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।

এম্বাসি অফ দ্য কিংডম অফ দ্য নেদারল্যান্ডসের আর্থিক সহায়তায় ‘সখি’ প্রকল্পের আওতায় ‘ আমরাই পারি পারিবারিক নির্যাতন প্রতিরোধ জোট’ এই সম্মেলনের আয়োজন করে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারী অধিকার আদায়, নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠা এবং নারীর ক্ষমতায়নের জন্য কাজ করছেন। সরকার নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে আইন প্রণয়ন, নীতিমালা তৈরিসহ নারীর পক্ষে কাজ করছে।

তিনি বলেন, ‘শুধু আইন প্রণয়ন করে নারী নির্যাতন বন্ধ করা যাবেনা প্রয়োজন সমাজের সর্বস্তর থেকে নির্যাতন বন্ধের দাবি। যখন যেখানেই নারী নির্যাতন, বাল্যবিয়ের মতো অন্যায় দেখবে সেখানেই রুখে দাঁড়াবেন। সরকার এ বিষয়টিকে যথেষ্ট বিবেচনায় রাখছে। ’

মন্ত্রী বলেন, লক্ষ্য করা গেছে যে নারীরা তাদের কাজে অনেক বেশি সৎ ও দায়িত্বশীল। এজন্য সরকার নারীদের পুলিশ সুপারের দায়িত্ব দিয়েছে, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশে নারীদের সম্পৃক্ত করেছে, নারীরা দুর্বল নয়, নারীরাও পুরুষের সমান পারদর্শী ও সাহসী।

তিনি বলেন, নারীর প্রতি সহিংসতা, বৈষম্য, নিরাপত্তাহীনতার বিরুদ্ধে জনগণকেই সোচ্চার হতে হবে।

নারীকে ছাড়া দেশ এগিয়ে যেতে পারবে না, দেশকে এগিয়ে নিতে হলে নারী-পুরুষ সকলকে সমান্তরালে এগিয়ে যেতে হবে।

তিনি আমরাই পারি চেঞ্জমেকারদের উৎসাহ দিয়ে নারী নির্যাতন বিরোধী আন্দোলনে আরো বেশি করে যুক্ত হওয়ার আহ্বান জানান।
আমরাই পারি জোটের চেয়ারপার্সন সুলতানা কামালের সভাপতিত্বে সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন এম্বাসি অফ দ্য কিংডম অফ দ্য নেদারল্যান্ডসের ফার্স্ট সেক্রেটারি (এসআরএইচআরঅ্যান্ড জেন্ডার) ড. এ্যানি ভেস্টজেন্স ও সম্মানিত অতিথি ছিলেন কাজী রোজী এমপি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন আমরাই পারি জোটের জাতীয় সমন্বয়কারী জিনাত আরা হক। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাল্টি-সেক্টোরাল প্রজেক্টের পরিচালক ড. আবুল হোসেনের সভাপতিত্বে সেমিনারে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জোটের জাতীয় সমন্বয়কারী জিনাত আরা হক, সদস্য এডভোকেট ফরিদা ইয়াসমিন, ন্যাশনাল ট্রমা কাউন্সেলিংয়ের প্রধান ইসমত জাহান এবং এসআরএইচআর স্পেশালিস্ট ডা. শাহানা নাজনীন।

আলোচক হিসেবে প্রবন্ধের উপর বক্তব্য রাখেন আইনজীবী মিতালী জাহান, নারী উন্নয়ন কর্মী রওশন জাহান, আমরাই পারির সদস্য বনশ্রী মিত্র নিয়োগী, সামিয়া আহমেদ, মৌরি, মেরিস্টোপস্ বাংলাদেশের কর্মকর্তা ইমরুল খান, ড. মুনির, ডিএসকের কর্মকর্তা ড. কল্লোল, স্বর্ণকিশোরী নেটওয়ার্কের প্রতিনিধি ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ফারজানা ব্রাউনিয়া ও ইউপিএইচসির প্রতিনিধি মাসুদা।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech