রাজধানীতে চুলার আগুনে দগ্ধ নারীর মৃত্যু

  


পিএনএস ডেস্ক: রাজধানীর মিরপুরের রূপনগরে কেরোসিনের চুলার আগুনে দগ্ধ আসমা (১৪) নামের একজন গার্মেন্টকর্মীর মৃত্যু হয়েছে। আজ বুধবার ভোর ৪টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আগুনে দগ্ধ আসমার গ্রামের বাড়ি ভোলার ইলিশা গ্রামে। তার বাবার নাম আব্দুল মান্নান। রূপনগর থানার দুয়ারীপাড়া ভোলা বস্তিতে থাকতেন তিনি। কর্তব্যরত চিকিৎসক জানিয়েছেন, আসমার শ্বাসনালীসহ শরীরের প্রায় ৬০ শতাংশ দগ্ধ হয়েগেছে। পরে ভোর ৪টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

জানা গেছে, মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে আসমা রান্নাঘরে গেলে দুর্ঘটনাবশত কেরোসিনের বোতল থেকে কেরোসিন তেল তার শরীরে পড়ে। মুহূর্তেই চুলার আগুন তার সারাশরীরে ছড়িয়ে পড়ে। এ-সময় ওই একই বাসায় আসমার প্রতিবেশী নূর নবীসহ স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech