লঘুচাপ নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে, রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে গুড়িগুড়ি বৃষ্টি

  

পিএনএস ডেস্ক: পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপটি নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে গুড়িগুড়ি বৃষ্টি হচ্ছে এই বৃষ্টি থাকবে দুই দিন আবহাওয়া অধিদপ্তরের সর্বশেষ বিশেষ সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, গতকাল বিকেল নাগাদ নিম্নচাপটি চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে এক হাজার ১৮০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে এক হাজার ১৫০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে এক হাজার ৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে এক হাজার ৪৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে অবস্থান করছিল। এটি আরো ঘণীভূত হয়ে উত্তর দিকে অগ্রসর হতে পারে।

নিম্নচাপ কেন্দ্রের ৪৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটার, যা দমকা ঝড়ো হাওয়া আকারে ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। নিম্নচাপ কেন্দ্রের নিকটবর্তী এলাকায় সাগর উত্তাল থাকবে।

বিজ্ঞপ্তিতে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে এক নম্বর দূরবর্তী সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

বৃষ্টিপাত হতে পারে আরো কয়েকদিন
রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আরো কয়েকদিন বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, এই অবস্থা আরো দুই থেকে তিন দিন বিরাজ করবে।

এছাড়া ভারি বৃষ্টির কারণে পাহাড়ি এলাকার কোথাও কোথাও ভুমিধসের শঙ্কাও প্রকাশ করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আবহাওয়াবিদ শাহিনুল ইসলাম বলেন, ‘এখন আষাঢ় মাস, স্বাভাবিক ভাবেই বৃষ্টিপাত হবে। এখনো অতি ভারি বৃষ্টিপাত হয়নি। কোথাও কোথাও অতি ভারি বৃষ্টিপাত হতে পারে। এ অবস্থা পরিবর্তন হতে আরো দুই তিন দিন সময় লাগতে পারে।’

এদিকে আবহাওয়া অধিদফতর পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে। ভারি থেকে অতি ভারি বৃষ্টির কারণে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের পাহাড়ি এলাকার কোথাও কোথাও ভুমিধসের শঙ্কা রয়েছে।

স্থল নিম্নচাপটি ক্রমান্বয়ে দুর্বল হয়ে যেতে পারে
আবহাওয়ার এক সতর্কবার্তায় শনিবার বলা হয়েছে, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের পশ্চিমাঞ্চল এলাকায় অবস্থানরত স্থল নিম্নচাপটি উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে শনিবার বিকেল ৩টায় টাঙ্গাইল ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছিল।

এটি আরো উত্তর/উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে ক্রমান্বয়ে দুর্বল হয়ে যেতে পারে। খবর বাসসের।

এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় বায়ুচাপের তারতম্যের আধিক্য বিরাজ করছে এবং গভীর সঞ্চালনশীল মেঘমালা তৈরি অব্যাহত রয়েছে।

আবহাওয়া অধিদফতরের সতর্কবার্তায় চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দর সমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

এছাড়া উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech