‘ভালো ফুলটাই আমরা নির্বাচনের জন্য বেছে নেব’

  

পিএনএস ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমাদের কোনো প্রার্থী ডেঞ্জার অবস্থানে নেই। প্রার্থী হতে চাওয়া দোষের কিছু নয় বরং রাজনৈতিক অধিকার।

শত ফুল ফুটুক। তবে ভালো ফুলটাই আমরা নির্বাচনের জন্য বেছে নেব।
প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় শুরু হওয়া এক সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী হুন সেনের আমন্ত্রণে শেখ হাসিনা গত ৩ থেকে ৫ ডিসেম্বর সে দেশ সফর করেন। এ সফর নিয়ে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে।

আগাম নির্বাচন প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, পার্লামেন্টারি সিস্টেমে যে কোনো সময় নির্বাচন দেওয়া যায়। তবে এমন কোনো দৈন্যদশায় পড়িনি, বা সমস্যায় পড়িনি যে, এখনই নির্বাচন দিতে হবে। তবে আমাদের উন্নয়নের ধারা আমরা অব্যাহত রেখেছি। উন্নয়নের কাজগুলো আমরা দ্রুত এগিয়ে নিতে চাই।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা না থাকলে উন্নয়নের যে কি দশা হয় তা আপনারা দেখেছেন। ৯৬ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত যেগুলো আমরা করেছিলাম, যেগুলো বাকি ছিল সেগুলো আর সচল থাকেনি। উন্নয়নের সে ধারা অব্যাহত রাখেনি। ২০০৯ থেকে ২০১৭ সালের মধ্যে আমরা যে উন্নয়ন করেছি তা চ্যালেঞ্জ করে বলতে পারি অন্য কোনো সরকার করতে পারে নাই।

বিএনপি চেয়ারপাসন খালেদা জিয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ক্ষমা করে দেয়ার প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়া কি ক্ষমা করেছেন না কি ক্ষমা চেয়েছেন- সেটি স্পষ্ট নয়। তিনি গ্রেনেড হামলা করে আমাকে মারতে চেয়েছেন, মাটিতে বোমা পুঁতে মারতে চেয়েছেন, গাড়িতে আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে মেরেছেন। তিনি কি এসব বিষয়ে ক্ষমা চাইছেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি (খালেদা জিয়া) অভিযোগ করেছেন আমি নির্বাচন থেকে সরানোর জন্য তার বিরুদ্ধে মামলা দিয়েছি। কিন্তু আমার সরকার তার বিরুদ্ধে কোনো মামলা দেয়নি।

বরং তার সরকারের আমলে আমার বিরুদ্ধে ডজন খানেকের বেশি মামলা দেয়া হয়েছে। আর যারা মামলা দিয়েছে মঈন উদ্দিন, ফখরুদ্দিন তাদের নিজেদের লোক। মামলায় থেকে তার পলায়নপর নীতি আপনারা তা দেখেছেন। কোর্টে যাওয়া নিয়েও তাণ্ডব হয়েছে। এর আগে আওয়ামী লীগের এমপির গাড়ি ভাঙচুর করেছে, আগুন দিয়েছে।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech