উড়োজাহটিতে ছিলেন রাগীব-রাবেয়ার ১৩ শিক্ষার্থী

  

পিএনএস ডেস্ক : নেপালের কাঠমান্ডুতে বিধ্বস্ত হওয়া ইউএস বাংলার উড়োজাহাজটির যাত্রী ছিলেন সিলেটের জালালাবাদ রাগীব-রাবেয়া মেডিকেল কলেজের ১৩ শিক্ষার্থী। তাঁরা সবাই নেপালি।

সন্ধ্যায় যোগাযোগ করা হলে সিলেটের জালালাবাদ রাগীব-রাবেয়া মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ আবেদ হোসেন বলেন, ‘বিধ্বস্ত হওয়া উড়োজাহাজটিতে আমাদের ১৩ জন শিক্ষার্থী ছিলেন। ১৯তম ব্যাচের এই শিক্ষার্থীরা সবাই নেপালের নাগরিক।’ তিনি বলেন, চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষা শেষে ফলাফল প্রকাশের জন্য দুই মাসের মতো সময় লাগে। এই সময়ে অনেকেই নিজেদের বাড়িতে চলে যান। নেপালের শিক্ষার্থীরাও দেশে ফিরছিলেন। তাঁদের ভাগ্যে কী ঘটেছে তা জানা যায়নি।

রাগীব-রাবেয়া মেডিকেল কলেজের একটি সূত্র জানায়, এই বিমানে যাত্রী ছিলেন শিক্ষার্থী সঞ্জয় পৌডেল, সঞ্জয়া মহারজন, নেগা মহারজন, অঞ্জলি শ্রেষ্ঠ, পূর্ণিমা লোহানি, শ্রেতা থাপা, মিলি মহারজন, শর্মা শ্রেষ্ঠ, আলজিরা বারাল, চুরু বারাল, শামিরা বেনজারখার, আশ্রা শখিয়া ও প্রিঞ্চি ধনি।

মেডিকেল কলেজ সূত্র জানায়, সিলেট নগরের পাঠানটুলা এলাকায় তারাপুর চা-বাগানে অবস্থিত মেডিকেল কলেজ হাসপাতালটি। ১৯৯৫ সালে প্রতিষ্ঠিত মেডিকেল কলেজটি সিলেটের প্রথম বেসরকারি মেডিকেল কলেজ। ছাত্রছাত্রী সংখ্যা ১ হাজার ৫০০। এর মধ্যে শতাধিক নেপালি ছাত্রছাত্রী রয়েছেন।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech