মাত্র ১৩ দিনের সংসার ছিল তাদের

  

পিএনএস ডেস্ক:
মাত্র ১৩ দিন হয়েছে বিয়ে হয়েছিল আঁখি মনি ও মিনহাজ বিন নাসিরের। পরিবারের থেকে বিদায় নিয়ে গত সোমবার নেপালের রাজধানী কাঠমাণ্ডুতে হানিমুনের উদ্দেশে রওনা দেন। কিন্তু এই বিদায়ই হয়ে তাদের শেষ বিদায়।

ঢাকার শাহজালাল বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমানে উঠেন। সময়মতো কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরেও পৌঁছান। কিন্তু তাদের যাত্রা শেষ হয় নিথর দেহে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি হাতের ছবি বারবার আসছে। যে হাতটিতে মেহেদির নকশা। হাতে দুটি পাথরের আংটি জ্বলজ্বল করছে। তবে হাতের চামড়া পুড়ে ঝুলে গেছে। অনেকে ধারণা করছেন, এই হাতটি ছিল আঁখি মনির।

নিহত আঁখি মনির বন্ধু কুশল ইয়াসির জানান, নিহত নবদম্পতি আঁখি মনি ও মিনহাজ বিন নাসিরের বাসা রাজধানীর মহাখালীতে।

গত ২৮ ফেব্রুয়ারি হলুদ আর ৩ মার্চ বিবাহোত্তর সংবর্ধনা হয় আঁখি মনি ও মিনহাজ বিন নাসিরের। জাঁকজমকপূর্ণ ওই অনুষ্ঠানের পর পরিবারের উদ্যোগে তাদের নেপালে হানিমুনে পাঠানো হয়।

কুশল জানান, কাঠমান্ডুতে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার পর আঁখি ও মিনহাজের মোবাইল ফোন থেকেই দেশে তাদের মৃত্যুর খবর আসে। বর্তমানে কাঠমান্ডুর হাসপাতালের মর্গে এ নবদম্পতির লাশ রয়েছে।

পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech