প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটে মাদকসেবীর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে: বিমানমন্ত্রী

  

পিএনএস ডেস্ক :প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লন্ডন যাত্রার ফ্লাইটের আগে মাদকসেবন ও তথ্য গোপনকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামাল। ইতোমধ্যেই অভিযুক্তদের গ্রাউন্ডেড (অব্যাহতি) করা হয়েছে। বিভাগীয় তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষ দায়ীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন মন্ত্রী।

মঙ্গলবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর ট্যুরিজম বোর্ড কার্যালয়ে বিশ্ব পর্যটন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

এত বড় অপরাধের পর কীভাবে তাকে ডিউটি দেয়া হল? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে বিমানমন্ত্রী বলেন, ‘নারী ক্রু সৈয়দা মাসুমা মুফতিকে সাসপেন্ড করা হয়েছে জানি। তদন্ত চলছে। তবে তার বস রঞ্জুকে কিভাবে ডিউটি দেয়া হয়েছে তা আমি জানি না। আমি এখনই ফোন করে এমডিকে বিষয়টা জিজ্ঞেস করবো।’

গতকাল সোমবার (২৪ সেপ্টেম্বর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লন্ডন ফ্লাইটের আগে ডোপ টেস্টে পজিটিভ হওয়ার তথ্য গোপন করায় সৈয়দা মাসুমা মুফতি নামে এক বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের নারী ক্রু-কে (গ্রাউন্ডেড) বহিষ্কার করা হয়। লন্ডনের উদ্দেশে যাওয়া প্রধানমন্ত্রীকে বহন করা বিজি-০০১ ফ্লাইটের ক্রু হিসেবে মাসুমার যাওয়া কথা ছিল।

বিমানের নিয়ম অনুযায়ী, ভিভিআইপি ফ্লাইটে ওঠার আগে ওই ক্রুর শরীরে অ্যালকোহল বা মদের উপস্থিতি রয়েছে কিনা, তা পরীক্ষা করা হয়। বিমানের চিফ মেডিকেল অফিসার-সিএমও-এর ফাইনাল স্বাস্থ্য পরীক্ষায় মাসুমার শরীরে অ্যালকোহলের উপস্থিতি ধরা পড়ে। অ্যালকোহলের টেস্ট পজিটিভ হওয়ায় অভিযুক্ত কেবিন ক্রু সৈয়দা মাসুমা মুফতিকে ভিভিআইপি ফ্লাইট থেকে বহিষ্কার করা হয়।

মাসুমা মুফতি নামে ওই বিমানবালাকে বহিষ্কার করার পাশাপাশি এ সংক্রান্ত তথ্য গোপন করায় ফ্লাইট সার্ভিসের ডিজিএম (ভারপ্রাপ্ত) নুরুজ্জামান রঞ্জুকেও বহিষ্কার করা হয়।

পর্যটন শিল্পের বিকাশে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিপাদ্যে বিশ্ব পর্যটন দিবস উপলক্ষে আগামী বৃহস্পতিবার রাজধানীর ধানমন্ডির রবীন্দ্র সরোবরে শুরু হবে ট্যুরিজম ফেস্ট ২০১৮। তিন দিনের এই আয়োজন চলবে ২৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

উৎসব স্থলে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে পর্যটন সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের পণ্য ও সেবা প্রদর্শন করবে। ২৭ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৩টায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী একেএম শাহজাহান কামাল।

মন্ত্রী বলেন, ‘বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী পর্যটনের বিকাশে ও বাংলাদেশকে পরিচয় করিয়ে দিতে আমি মন্ত্রী হওয়ার পর ইতালির মিলানে গিয়েছি। যা আগে কোনো মন্ত্রী যাননি। দুবাই গিয়েছি, কলকাতা গিয়েছি। ঈদের দিন দিল্লি গিয়েছি। আমার ছেলে-মেয়েদের সঙ্গে ঈদ না করে আমি পর্যটনের জন্য দিল্লি যাই, মুম্বাই যাই। উন্নত দেশগুলো কীভাবে ট্যুরিজম সেক্টরকে প্রমোট করছে তা কল্পনাই করা যায় না। তারপরও আমি বলবো- ২৭ বছর পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে দেশের মান-সম্মান ফিরিয়ে এনেছেন।’

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech