বাংলাদেশকে ‘কড়া’ বার্তা ইউরোপীয় পার্লামেন্টের!

  

পিএনএস ডেস্ক : বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতির অবনতি নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ইউরোপীয় পার্লামেন্ট। বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) এক নজিরবিহীন বিবৃতিতে এই উদ্বেগের কথা জানানো হয়। পাশাপাশি বাংলাদেশে গণমাধ্যম, শিক্ষার্থী, অধিকারকর্মী ও রাজনৈতিক বিরোধীদের দমনের সমালোচনাও উঠে এসেছে ওই বিবৃতিতে।

বাংলাদেশে বিচারবহির্ভূত খুন, গুমের মতো ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে তারা বলেছে, সরকারকে এসব বিচারবহির্ভূত হত্যা, গুম এবং বিভিন্ন ক্ষেত্রে জোর প্রয়োগের মতো ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্ত পরিচালনা করতে হবে।

খানিকটা ‘কড়া’ ভাষায় লেখা ওই বিবৃতিতে রাজনৈতিকভাবে উদ্দেশ্যেপ্রণোদিত বিভিন্ন মেয়াদে দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বিরোধী দলীয় নেতা ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার বিষয়েও বার্তা দিয়েছে বিশ্বের এই বৃহত্তম পার্লামেন্ট।

বিবৃতির প্রথম এক পরিচ্ছেদে বাংলাদেশের জন্য ‘কড়া’ বার্তা এলেও দ্বিতীয় পরিচ্ছেদে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের আশ্রয় দেওয়াকে গঠনমূলক ও সঠিক সিদ্ধান্ত বলে উল্লেখ করে।

রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রত্যার্পণে দুই দেশের অংশীদারমূলক অংশগ্রহণের আহ্বান জানিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়, “যেহেতু নিরাপদ, মর্যাদাপূর্ণ ও স্বেচ্ছা প্রত্যাবর্তন শর্ত এখনও পূরণ হয়নি, সেহেতু অবিলম্বে দুই দেশকে এবিষয়টি সুরাহায় এগিয়ে আসতে হবে।”

বাংলাদেশে রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরে প্রয়োজনীয় আর্থিক ও অন্যান্য সহায়তা দিতে ইইউ ও অন্যান্য আন্তর্জাতিক দাতাদের কাছে সংসদ সদস্যরা আহ্বান জানিয়েছেন বলেও উল্লেখ করা হয় ওই বিবৃতিতে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech