‘কোস্টগার্ডের আধুনিকায়নে ব্যাপক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে সরকার’

  

পিএনএস ডেস্ক : রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বলেছেন, বর্তমান সরকার কোস্ট গার্ডের আধুনিকায়ণে ব্যাপক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। ২০৩০ সালের মধ্যে কোস্ট গার্ডকে একটি আধুনিক দ্বিমাত্রিক বাহিনী হিসাবে গড়ে তুলতে এ বাহিনীর যান্ত্রিক ও প্রযুক্তিগত সক্ষমতা বৃদ্ধি করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড এর ২৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও কোস্টগার্ড দিবস উপলক্ষে বুধবার দেয়া এক বাণীতে রাষ্ট্রপতি এ কথা বলেন।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও 'কোস্ট গার্ড দিবস-২০১৯' উপলক্ষে বাহিনীর সকল সদস্যকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘দেশের সিংহভাগ বাণিজ্যিক কর্মকান্ড পরিচালিত হয় সমুদ্র পথে। দেশের বিশাল সামুদ্রিক এলাকার প্রাকৃতিক ও খনিজ সম্পদের সুষ্ঠু ব্যবহার এবং সুরক্ষা বাংলাদেশের জাতীয় উন্নয়নের জন্য অপরিহার্য। দেশের জলসীমা এবং উপকূলীয় এলাকার নিরাপত্তা বিধানে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড এর সদস্যরা নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করে যাবে-এটাই সকলের প্রত্যাশা।’

তিনি বলেন, প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড দেশের জলসীমা ও উপকূলীয় অঞ্চলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা, দস্যুতা দমন, অবৈধ অনুপ্রবেশ, মানবপাচার, চোরাচালান প্রতিরোধ এবং মৎস্য ও বনজ সম্পদ রক্ষায় সক্রিয় ভূমিকা পালন করছে।

মাদক চোরাচালান প্রতিরোধে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড ও সংশ্লিষ্ট সকল সংস্থা জোর প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখবে এমন প্রত্যাশা ব্যাক্ত করে আবদুল হামিদ বলেন, এ বাহিনী পরিবেশ দূষণ প্রতিরোধ, প্রাকৃতিক দুর্যোগকালে উপকূলীয় এলাকায় ত্রাণ ও উদ্ধার কার্যক্রম পরিচালনায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। নৌপথে বিভিন্ন ধরণের মাদক ও নেশা জাতীয় দ্রব্যের চোরাচালান বন্ধে বিশেষ নজরদারি বাড়ানো আবশ্যক।-বাসস

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল




 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech