ঢাকা-চট্টগ্রামসহ ৮৭ রুটে ২৪ ঘণ্টার পরিবহন ধর্মঘটের ডাক

  

পিএনএস ডেস্ক : গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) পরিচয়ে বাস থেকে চালককে নামিয়ে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে ঢাকা-চট্টগ্রামের ৬৮টি আন্তঃজেলা ও চট্টগ্রাম-কক্সবাজার-টেকনাফের ১৯টি রুটে ২৪ ঘণ্টার ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন পরিবহন শ্রমিকরা। বুধবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত এ ধর্মঘট পালিত হবে বলে জানান তারা। এছাড়া আগামী রোববার ভোর ৬টা থেকে পরদিন সোমবার ভোর ৬টা পর্যন্ত বৃহত্তর চট্টগ্রামের পাঁচ জেলায় সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম নগরীর কোতোয়ালী থানার বিআরটিসি মার্কেটের বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের আঞ্চলিক কার্যালয়ে এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয় পরিবহন শ্রমিকরা।

পূর্বাঞ্চলীয় সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি মৃণাল চৌধুরী বলেন, বাস চালককে হত্যার প্রতিবাদে বুধবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টা শুধুমাত্র যাত্রীবাহী পরিবহন ধর্মঘট আহ্বান করা হয়েছে। চট্টগ্রাম থেকে দেশের অন্যান্য জেলায় চলা ৬৮টি রুট এবং আরাকান সড়ক সংশ্লিষ্ট দক্ষিণ চট্টগ্রামের ১৯টি রুটে এই পরিবহন ধর্মঘট চলবে।

এছাড়া রোববার (২৮ এপ্রিল) সকাল ৬টা থেকে পরদিন সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টা বৃহত্তর চট্টগ্রামের পাঁচ জেলায় পণ্য ও যাত্রীবাহী পরিবহন ধর্মঘট আহ্বান করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

মৃণাল চৌধুরী বলেন, চালককে বাস থেকে যারা নামিয়েছিল, তাদের কাছে হ্যান্ডকাপ, ওয়াকিটকি এবং অস্ত্র ছিল। একটি সাদা মাইক্রোবাসে করে এসে চালকের হাতে হ্যান্ডকাপ পরিয়ে তাকে নামানো হয় এবং রাস্তার পাশে নিয়ে পেটানো হয়। এক পর্যায়ে তার মুখের ওপর পানি ঢালা হয়। মৃত্যু নিশ্চিত করে তাকে বাসে ফেলে মাইক্রোবাসে করে খুনিরা চলে যায়। আমরা তাদের গোয়েন্দা পুলিশের সদস্য হিসেবেই চিহ্নিত করছি এবং প্রশাসনের কাছে জড়িতদের বিচার দাবি করছি।

প্রসঙ্গত, গত সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার শান্তিরহাট এলাকার কক্সবাজার থেকে ছেড়ে আসা শ্যামলী পরিবহনের চালক জালাল উদ্দিনকে ডিবি পরিচয়ে বাস থেকে নামিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে বাসের মধ্যে ফেলে রাখা হয়। পরে আহত চালককে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech