পূজার দিনে ভোটগ্রহণের তারিখ, সরকারকে দুষছেন ড. কামাল

  

পিএনএস ডেস্ক : সরস্বতী পূজার দিনে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটগ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করায় সরকারকে দুষছেন গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠকের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ড. কামাল এ মন্তব্য করেন।

গণফোরামের সভাপতি বলেন, ‘সরস্বতী পূজার দিনে এটা করা সরকারের একটা অন্যায় কাজ হয়েছে। সেদিন (৩০ জানুয়ারি) সরস্বতী পূজা, এটা অতীতে কোনো দিন হয়নি। ঈদের দিন যদি নির্বাচন হয়, পূজার দিন যদি এটা হয়। এটা সরকারের একদম গাফিলতি ও ব্যর্থতা।’

অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবি জানিয়ে ড. কামাল বলেন, ‘দেশের জনগণ নির্বাচনের পক্ষে। কারণ এর মাধ্যমে জনগণ রাষ্ট্রে তার মালিকানা নিশ্চিত করতে পারে। অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন ছাড়া এই মালিকানা নিশ্চিত হবে না।’

আগামী ৩০ জানুয়ারি ভোটের তারিখ পরিবর্তনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থী বিক্ষোভ করছেন, এর প্রতি ঐক্যফ্রন্টের সমর্থন আছে কি না, এ বিষয়ে ড. কামাল বলেন, ‘নীতিগতভাবে তো আমরা পক্ষে।’

ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সরকারের দলীয় প্রার্থী, মন্ত্রী-এমপিদের নির্বাচন আচরণবিধি ভঙ্গ করা এবং ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীদের নির্বাচনী জনসংযোগে বাধা ও হামলা প্রমাণ করে নির্বাচনের কোনো সুষ্ঠু পরিবেশ নেই। এই ব্যাপারে নির্বাচন কমিশনও কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছেন না।’

মতিঝিলে ড. কামাল হোসেনের চেম্বারে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির এই বৈঠক হয়। ড. কামালের সভাপতিত্বে বৈঠকে জেএসডির আসম আবদুর রব, সা ক ম আনিসুর রহমান খান, সানোয়ার হোসেন তালুকদার, বিএনপির আবদুল মঈন খান, গণফোরামের আবু সাইয়িদ, সুব্রত চৌধুরী, রেজা কিবরিয়া, জগলুল হায়দার আফ্রিক, নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না, শহীদুল্লাহ কায়সার, ড. জাহিদ-উর রহমান, মমিমুল ইসলাম, গণস্বাস্থ্য সংস্থার ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech