কচুরিপানার কেজি ৮০ টাকা, ভিডিও ভাইরাল!

  

পিএনএস ডেস্ক: সম্প্রতি পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের কচুরিপানা খাওয়ার কথাটি ‘টক অব দ্য কান্ট্রি’তে পরিণত হয়েছে। যদিও তিনি পরের দিনই জানিয়েছেন, তার বক্তব্য ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে, তিনি মূলত গবেষণার কথা বলেছেন। আর এ বিষয়টি নিয়ে ঢের আলোচনা চলছে ইন্টারনেটে। আলোচনা হয়েছে জাতীয় সংসদেও। কচুরিপানার উপকারী দিক নিয়ে সংবাদও প্রচারিত হচ্ছে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে। এরমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, দোকান থেকে কচুরিপানা কিনছেন ক্রেতারা। তবে সময় নিউজের পক্ষ থেকে ভিডিওটির সত্যতা নিরপেক্ষভাবে যাচাই করা সম্ভব হয়নি। ভিডিওটি কোন জায়গা থেকে ধারণ করা সেটাও জানা সম্ভব হয়নি। তবে ভিডিও নিয়ে কাজ করেন এমন কয়েকজন জানিয়েছেন, কোনো একটি বাজারে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে এটি তৈরি করা হয়েছে।

বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) এমডি বনফুল নামের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে এমন একটি ভিডিও আপলোড করা হয়। ভিডিওটিতে দেখা যায়, এক ব্যক্তি সবজির দোকানে এসেই কচুরিপানার দাম জিজ্ঞাসা করছেন। বিক্রেতা জানাচ্ছেন, কচুরিপানার কেজি ৮০ টাকা। এরপর দাম কিছুটা কম রাখা যায় কিনা এমন প্রশ্ন করলে বিক্রেতা জবাব দেন, কেজিতে ৫ টাকা কম রাখা যাবে।

তবে তিনি ৬০ টাকা কেজি রাখতে বললেও রাজি হয়ে যান বিক্রেতা। এরপর তিনি আধা কেজি কচুরিপানা নেন।

এরমধ্যেই অপর এক ব্যক্তিও এসে দাম জানতে চান এবং তিনিও কিছু কচুরিপানা কেনে। একই সময়ে পেছন থেকে অপর একটি কণ্ঠ ভেসে আসে, যেখানে জানতে চাওয়া হয় আর কচুরিপানা আছে কিনা। জবাবে দোকানদার জানান, আছে, আছে।

তবে ভিডিওটি দেখে অনেকেই অবাক হলেও বেশিরভাগ ফেসবুক ব্যবহারকারীই বলছেন, এটি মন্ত্রীকে ট্রল করে বানানো হয়েছে।

মিজান রহমান নামের এক ব্যক্তি লেখেন, আসলে কি মানুষ পাগল হয়ে গেছে নাকি।

তার এমন প্রশ্নের জবাবে কায়সার হামিদ নামের এক ব্যক্তি লেখেন, Mizan Rehman আরে ভাই এগুলো মন্ত্রীকে ট্রল করে ভিডিও বানাইছে।

এছাড়াও কচুরিপানা খাওয়ার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে ফেসবুকে। যেখানে এক যুবককে কচুরিপানা খেতে দেখা যাচ্ছে। এ নিয়ে নানা মন্তব্য করছেন অনেকে। কেউ কেউ বলছেন, বিষয়টিকে অতিরঞ্জিত করা হচ্ছে। আবার কেউ কেউ বলছেন, এতে সমস্যা কোথায়? খেয়ে তো পরীক্ষা করে দেখতে হবে।

একজন মন্তব্য করেছেন, আমি গবেষণা করে কিছু বের হলে খাবো।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন