২৬ মার্চ করোনা সুরক্ষা সরঞ্জাম হস্তান্তর করবে চীন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  

পিএনএস ডেস্ক : আগামী ২৬ মার্চ চীন বাংলাদেশকে করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সুরক্ষা সরঞ্জাম হাস্তান্তর করবে। মঙ্গলবার বিকেলে এক ভিডিও বার্তায় এ তথ্য দিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে দেওয়া এ ভিডিও বার্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পূর্ব প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী আগামী ২৬ মার্চ চীন বাংলাদেশকে ১০ হাজার করোনা পরীক্ষার কিট, ১০ হাজার পিপিই বা সুরক্ষা গাউন এবং এক হাজার ইনফ্রারেড থার্মোমিটার হস্তান্তর করবে। এর দু’দিন পর চীন আরও ১৫ হাজার ভাইরাসরোধী এন৯৫ মাস্ক দেবে। চীন এগুলো দান করেছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এ ছাড়া স্থানীয় ব্যবসায়ীদের মাধ্যমেও করোনা সুরক্ষা সরঞ্জাম বুধবার থেকে আসতে শুরু করবে বলেও জানান তিনি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও জানান, করোনা ভাইরাস সংক্রমণজনিত সংকটের কারণে বিশ্বজুড়ে করোনা সুরক্ষা সরঞ্জামের চাহিদা ব্যাপকহারে বেড়েছে। এরই মধ্যে বিভিন্ন দেশ বাংলাদেশের কাছে সুরক্ষা সরঞ্জাম পাঠানোর জন্য অনুরোধ জানিয়েছে। এমনকি যুক্তরাষ্ট্রও বাংলাদেশকে সুরক্ষা সরঞ্জাম পাঠাতে অনুরোধ জানিয়েছে। বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা এসব অনুরোধ বিবেচনা করছে।

সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশ থেকে এন-৯৫ মাস্ক,হ্যান্ডগ্লাভস সহ ত্রিশ ধরনের সুরক্ষা সরঞ্জাম কিনতে চেয়ে একটি তালিকা পাঠিয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী করোনায় রপ্তানির ক্ষতি প্রসঙ্গে বলেন, বিজিএমইএ’র তথ্য মতে করোনা সংকটের কারণে যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের প্রায় ২ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের রপ্তানি থেমে গেছে। এ ছাড়া করোনা সংকট অব্যাহত থাকলে তা রেমিট্যান্স প্রবাহেও বাধার সৃস্টি করবে। এসব বিবেচনায় বাংলাদেশ সরকার এরই মধ্যে ইউরোপিয় ইউনিয়ন, যুক্তরাষ্ট্র এবং গ্রুপ-৭৭ কে অবহিত করেছে, যাতে এ বিশেষ অবস্থা থেকে পরিত্রাণ পাওয়া যায়।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন