পাপিয়ার ৪ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ!

  

পিএনএস ডেস্ক : নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক শামীমা নূর পাপিয়ার প্রায় ৪ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদের সন্ধান পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। পাপিয়া বর্তমানে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগারে সুস্থ আছেন বলে জানিয়েছেন ডেপুটি জেলার অলিভা শারমিন।

গত ২২ ফেব্রুয়ারি পাপিয়া ও তার স্বামী মফিজুর রহমানকে হযরত শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে ঢাকা ও নরসিংদীতে পাপিয়ার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বিপুল সম্পদের খোঁজ পায় র‌্যাব। এ ঘটনায় পাপিয়া ও তার স্বামীর বিরুদ্ধে জাল নোটের একটি এবং অস্ত্র ও মাদক আইনে দুটি মামলা করে সংস্থাটি। পরে মুদ্রাপাচার প্রতিরোধ আইনে তাদের বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা করে সিআইডি। পাশাপাশি পাপিয়ার অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধানে নামে দুদক।

দুদকের এক কর্মকর্তা জানান, তদন্তে পাপিয়ার বিরুদ্ধে ৪ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদের তথ্য পাওয়া গেছে। অনুসন্ধান প্রায় শেষ পর্যায়ে। তাকে অন্য একটি সংস্থা জিজ্ঞাসাবাদ করছে। এর পর দুদকের পক্ষ থেকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তার বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।

জানা গেছে, পাপিয়ার বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলার অভিযোগপত্র আদালতে জমা দেওয়া হয়েছে। মাদক মামলার তদন্তে তাকে ১৪ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছিল। একদিন জিজ্ঞাসাবাদের পর জ্বর হওয়ায় তাকে কারাগারে ফেরত পাঠানো হয়। ফের রিমান্ডে নিয়ে তাকে বাকি ১৩ দিন জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

সিআইডির করা মানিলন্ডারিং মামলার অগ্রগতি বিষয়ে ডিআইজি ইমতিয়ার আহমেদ জানান, বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে মামলার কাজ পুরোদমে চলছে না। তবে ভার্চুয়াল কাজকর্ম চলছে। তদন্ত করতে হলে কারও কারও কাছে যেতে হবে। বর্তমান পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠলে এ মামলায় পাপিয়াকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন