'দিনে ৫০ শিশুর মৃত্যু পানিতে ডুবে'

  

দেশে প্রতিদিন গড়ে ৫০ শিশুর মৃত্যু হয় পানিতে ডুবে

পিএনএস ডেস্ক: দেশে প্রতিবছর যে পরিমাণ শিশু অপঘাতজনিত কারণে প্রাণ হায় তার একটি বড় অংশের মৃত্যু হয় পানিতে ডুবে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, দেশে প্রতিদিন গড়ে ৫০টি শিশুর মৃত্যু হয় পানিতে ডুবে। যার মধ্যে ৩২ জনের বয়স চার বছরের কম। এ হিসেবে অপঘাত জনিত কারণে সারা বছর যত শিশু মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে, তার ১০০ জনের ৪৩ জন মারা যাচ্ছে পানিতে ডুবে। আর বাকি ৫৭টি শিশুর মৃত্যু হয় নানা রোগ-শোক থেকে শুরু করে অপঘাত জনিত কারণে।

শিশু মৃত্যু নিয়ে যারা দীর্ঘ দিন থেকে কাজ করছে, সেই সকল বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শিশু মৃত্যু রোধ বৈশ্বিকভাবে এসডিজির অন্তর্ভুক্ত করা হলেও পানিতে ডুবে সে তালিকায় অন্তর্ভুক্ত নয়। ফলে অসুস্থতা জনিত কারণে শিশু মৃত্যু গুরুত্ব পেলেও পানিতে ডুবে মৃত্যু নিয়ে তেমন কোন প্রতিরোধ কর্মসূচি নেই।

এখনই এ ইস্যু সরকার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ না নিলে শিশু মৃত্যুর উচ্চ হার রোধ করা সম্ভব হবে না বলে মন্তব্য করেছেন তারা।

শিশু স্বাস্থ্য, মানসিক বিকাশ এবং অপমৃত্যু রোধে দীর্ঘ দিন থেকে কাজ করে আসছেন ইন্টারন্যাশনাল ড্রাউনিং রিসার্চ সেন্টার (আইডিআরসি) বাংলাদেশের ডিরেক্টর ড. আমিনুর রহমান। তিনি বলছেন, ‘সবাই বলে নিউমোনিয়া, ডায়রিয়ায় বেশি মারা যায়; কিন্তু আসলে বেশি শিশু মারা যায় পানিতে ডুবে। কিন্তু এটা রিপোর্ট হয়না। পুলিশের খাতাও এদের সংখ্যা থাকেনা। তাই শিশু মৃত্যুর এ ব্যাপকতা আমাদের নজরের বাইরে রয়ে যায়।’

পানিতে ডুবে শিশু মৃত্যু রোধে জনসচেতনা তৈরিতে গণমাধ্যমের ভূমিকার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন তিনি বলেন,‘পানিতে ডুবে মৃত্যুর সবগুলো ঘটনার তথ্য গণমাধ্যম পায় না। এ নিয়ে জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ে কোনো কার্যকর তথ্য সংরক্ষণ ব্যবস্থা এখনো গড়ে উঠেনি।গণমাধ্যম পানিতে ডুবে মৃত্যুর যে সংবাদ গুলো আসছে সেগুলো শুধুই ঘটনাকেন্দ্রিক।এ ইস্যুতে গণমাধ্যম গুলোর উচিত সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে গভীরতাধর্মী প্রতিবেদন করা। তাহলে সরকারে নীতি-নির্ধারণী ইস্যুটি যেমন গুরুত্ব পাবে।ঠিক তেমনই সাধারণ জনগণের মাঝে সচেতনতা তৈরি হবে।’

পানিতে ডুবে শিশু মৃত্যু নিয়ে গণমাধ্যম গঠন মূলক ভূমিকা রাখলে জাতীয় পর্যায়ে কর্মসূচি গ্রহণের বিষয়টিকে তরান্বিত হবে বলে মন্তব্য করেন ড. আমিনুর রহমান।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী প্রতিবছর ৩ লাখ ৫৯ হাজার ৪০০ জন ব্যাক্তি পানিতে ডুবে মারা যান।এরমধ্যে সব থেকে বেশি মানুষের মৃত্যু হয় দক্ষিণ এশিয়ায়।আর সব থেকে বেশি মৃত্যুর ঘটনা ঘটে ভারতে কিন্তু জনসংখ্যার অনুপাতে মৃত্যুহার সব থেকে বেশি বাংলাদেশে।যার মধ্যে সব থেকে বেশি ১ থেকে ৪ বছর বয়সী শিশু।

ব্লুমবার্গ ফিলানথ্রপিস, জন হপকিন্স ইন্টারন্যাশনাল ইনজুরি রিসার্চ ইউনিট, দি সেন্টার ফর ইনজুরি প্রিভেনশন অ্যান্ড রিসার্চ বা সিআইপিআরবি এবং আইসিডিডিআরবি পরিচালিত গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতিদিন গড়ে ৪০টি শিশু এবং বছরে বাংলাদেশে ১২ হাজার শিশু মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন